টাইমলাইনভারতরাজনীতি

১০ লক্ষ শূণ্যপদ কেন্দ্র সরকারে, রেলে খালি প্রায় ৩ লক্ষ! প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর তথ্য, বিপাকে মোদি সরকার

বাংলা হান্ট ডেস্ক : প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর তথ্য। কেন্দ্রীয় সরকারের চাকরিতে গোটা দেশে এখন প্রায় ১০ লক্ষ পদ শূন্য পড়ে রয়েছে। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ফাঁকা পদ রয়েছে রেল মন্ত্রকেই (Rail Ministry)। জানা যাচ্ছে, প্রায় ২.৯৩ লক্ষ পদ খালি রয়েছে রেলে। সীমান্ত এবং দেশের অভ্যন্তরীণ সুরক্ষার দায়িত্ব যে দুই মন্ত্রকের, শূন্য পদের ভিত্তিতে সেই প্রতিরক্ষা (Defence Ministry) এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক (Central Home Ministry) রয়েছে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে।

কিন্তু ভাবলেশহীন সরকার। কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে কেন্দ্র বিশেষ কোনও ভাবে উদ্যোগী হয়নি বিজেপি সরকার। তার জেরেই যুব সমাজের একটি বড় অংশ যে পদ্ম শিবিরের পাশ থেকে সরে গিয়েছে, তা বেশ ভালোই জানেন নরেন্দ্র মোদি-অমিত শাহরা। তাই পরিস্থিতি বদলাতে দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিগত বছর ধরেই ‘রোজগার মেলা’ করছে মোদি সরকার। গতকাল রাজ্যসভায় একটি প্রশ্নের উত্তরে সরকার দাবি করে, গত রোজগার মেলায় প্রায় লক্ষাধিক মানুষ চাকরি পেয়েছেন।

Indian Railways Technology

রাজ্যসভাতে আপ সাংসদ সঞ্জয় সিংহের করা প্রশ্নের উত্তরে কর্মিবর্গ মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী জিতেন্দ্র সিংহ জানান, এই মুহূর্তে গোটা দেশে সরকারি চাকরিতে ৯,৭৯,৩২৭টি পদ খালি রয়েছে। তার মধ্যে সব থেকে বেশি শূন্য পদ রয়েছে রেলে দফতরে। সংখ্যাটি হল ২,৯৩,৯৪৩। প্রতিরক্ষা মন্ত্রকে শূন্য পদ ২,৬৪,৭০৬টি। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকে খালি রয়েছে ১,৪৩,৫৩৬টি পদ। সরকারের দাবি, প্রতি তিন থেকে চার মাস অন্তর দেশের বিভিন্ন প্রান্তে রোজগার মেলা হচ্ছে। সরকারের লক্ষ্য, দ্রুত শূন্যস্থান পূরণ করে যুবকদের চাকরি নিশ্চিত করা।

প্রসঙ্গত, ২০২৩ সালের রোজগার মেলার আয়োজন করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। গত বছর ২২ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি রোজগার মেলার বিষয়ে ঘোষণা করেছিলেন। সংশ্লিষ্ট কর্মসংস্থানের মেলা থেকে সরকারের ৩৮টি বিভিন্ন মন্ত্রকের যুবদের বিভিন্ন ধরনের কাজের সুযোগ দেওয়া হবে। এবারের রোজগার মেলাতেও ৭১ হাজারের বেশি যুবক-যুবতীর হাতে চাকরির নিয়োগপত্র তুলে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এখনও পর্যন্ত গত বছর থেকে দু দফায় রোজগার মেলা হয়েছে। এবার চলতি বছরের শুরুতেই ফের রোজগার মেলা করে কর্মসংস্থান আরও বাড়ানোর লক্ষ্যে একধাপ এগোল কেন্দ্র। দেশের বেকারত্বের সমস্যা সমাধানেই শিক্ষিত যুব সমাজের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে দাবি সরকারের।

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker