কলকাতাটাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

মুসলিম ধর্মের হওয়ায় ঠাঁই হল না গেস্ট হাউজে, অগ্রিম বুকিং সত্ত্বেও বের করে দেওয়া হল ১০ মাদ্রাসা শিক্ষককে

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ তাঁদের ধর্ম মুসলিম, এই ছিল তাঁদের অপরাধ। এই অপরাধেই ১০ জন মাদ্রাসা শিক্ষককে (Madrasa Teacher) বের করে দিল সল্টলেকের একটি গেস্ট হাউজ। আগে থাকতে বুকিং করে, কর্মসূত্রে কলকাতায় আসা এই শিক্ষকদের সঙ্গে অমানবিক আচরণ করার অভিযোগ উঠল সল্টলেকের একটি গেস্ট হাউজের নামে।

ঘর না দেওয়ার অভিযোগ
বিকাশ ভবনের ডাইরেক্টর অফ মাদ্রাসা এডুকেশন বিভাগে কিছু জরুরী কাজ থাকায় সোমবার ভোরে মালদহ থেকে কলকাতায় আসেন ১০ জন মাদ্রাসা শিক্ষক। তারা অভিযোগ জানায়, কলকাতায় এসে থাকার জন্য আগে থাকতেই সল্টলেক সেক্টর ২- এর DL 39 গেস্ট হাউজে ১২০০ টাকা করে তিনটি রুম বুক করেছিলেন তারা। কিন্তু এখানে আসার পর রেজিস্টারে সই করার পর তাঁদের জানানো হয় ঘর ফাঁকা নেই। তারপর তাঁদের CL 164 বাড়ির গেস্ট হাউজে ৩ ঘণ্টা বসিয়ে রাখার পর বের করে দেওয়া হয়।

জানানো হয় মুখ্যমন্ত্রীর দফতরে
বৈধ পরিচয় পত্র দেখানো সত্ত্বেও তাঁদের সাথে এই অমানবিক আচরণ করা হয় বলে, তারা অভিযোগ করেছেন। শেষে প্রচণ্ড বৃষ্টিতে ভিজে তারা মেট্রো ওভারব্রিজের নীচে গিয়ে আশ্রয় নেয়। পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষক ঐক্য মঞ্চের সাহয্যে বিধাননগর পুলিশকে জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দফতরেও জানানো হয় বিষয়টি।

দায় এড়াচ্ছে গেস্ট হাউস কর্তৃপক্ষ
ঘটনার বিষয়ে CL 164 গেস্ট হাউসের কর্মকর্তা তন্ময় মুখার্জি জানিয়েছেন, ‘আমার এখানে কিছু হয়নি। ওনাদের এখানে তিন ঘন্টা রাখার জন্য পাঠানো হয়েছিল। তাঁদেরকে সাময়িকভাবে যে ঘরে থাকতে দেওয়া হয়েছিল, সেটা আগে থাকতেই বুকিং করা ছিল। তাই ১০ টা বাজতেই তাঁদের অন্যত্র চলে যাওয়ার কথা বলা হয়। এখানে কোন ধর্মকে আঘাত করার জন্য কিছু করা হয়নি’।

Back to top button