fbpx
টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

মমতা ব্যানার্জীর টেলিফোনে রহস্যময় ২২ টি মিসকল, তদন্তে নামল কলকাতা পুলিশ

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীের (Mamata Banerjee) ব্যাক্তিগত টেলিফোন পঁয়ষট্টি মিনিটের মধ্যে বাইশটি কলের রহস্য উদ্ঘাটনে কলকাতা পুলিশ বিশেষ তদন্ত দল গঠন করলো ৷ কলগুলো আসে বুধবার বিকেল চারটে থেকে পাঁচটা পাঁচের মধ্যে ৷ মমতা তখন জেলাশাসক ও জেলা অধকারিকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করছিলেন ৷ প্রথম ফোনটি বেজে ওঠার পর তিনি ফোন সাইলেন্ট মোড এ দিয়ে মিটিং চালাতে থাকেন ৷ কিন্তু তাতেও নিবৃত্ত করা যায়নি টেলিফোনকারীকে ৷

বিকেল পাঁচটা পাঁচ পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রীর ফোন নিয়মিত বেজে যায় ৷ বিরক্ত হয়ে মমতা  ব্যানার্জী পাঁচটা দু মিনিটে কলকাতার পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মাকে (Anuj Sharma) ফোন করে ব্যাপারটি জানান ৷ কলকাতার পুলিশ কমিশনার এ ব্যাপারে প্রকাশ্যে কোন মন্তব্য করতে না চাইলেও বিশেষ তদন্তকারী দল গড়ে অনুসন্ধান শুরু করেছে ৷ জানা গেছে একটি নম্বর থেকে নয়, কল এসেছিলো বিভিন্ন নম্বর থেকে ৷ কারণ বিরক্ত মুখ্যমন্ত্রী একটি নম্বর ব্লক করে দিলেও কল আসা থামেনি ৷ রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা (Rajiv Sinha)  বিষয়টিকে যতই মুখ্যমন্ত্রীর জনপ্রিয়তা বলে ব্যাখ্যা দিন তৃণমূল নেতারা তা মানতে নারাজ ৷

তাঁদের বক্তব্য, দিদির ব্যাক্তিগত নম্বর সবার জানা থাকলেও কেউই তাকে সরাসরি ফোন করে না ৷ কথা বলতে চাই বলে বার্তা পাঠানো হয় ৷ মুখ্যমন্ত্রী মনে করলে কল ব্যাক করেন ৷ সে ক্ষেত্রে তার ফোনে পরপর বাইশটি কল আসা সত্যিই রহস্যজনক ৷ উল্লেখ্য, দুহাজার নয় সাল থেকে মমতা বন্দোপাধ্যায় হাই সিকিউরিটি রিস্ক ৷ কিন্তু তিনি যথাযথ নিরাপত্তা নেন না ৷ বাইশটি টেলিফোন কল এর সঙ্গে তাঁর নিরাপত্তার যোগ আছে কিনা তাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ ৷ গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে একাধিকবার বাড়ি ও এলাকা পরিবর্তনের পরামর্শের পরও হরিশ চ্যাটার্জি স্ট্রিটের (Harish Chatterjee Street) বাড়ি পালটাতে নারাজ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। রাজনৈতিক জীবনের শুরু থেকেই ওই বাড়িতেই রয়েছেন তিনি।

Back to top button
Close
Close