টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গআন্তর্জাতিক

বাংলায় উদ্ধার হল আকাশ ছোঁয়া দামের ২৫ টি প্রাচীন মূর্তি, বাংলাদেশ সীমান্তে পাচারের আগেই মিলল বড়ো সাফল্য

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ বাংলার (West bengal) বুক থেকে বহুবার নানান দুস্প্রাপ্য জিনিস উদ্ধার হলেও, তার মধ্যে চালান হওয়ার খবরই বেশি পাওয়া যায়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায়, গোপনে পাচার হয়ে যাচ্ছিল বহু প্রাচীন কোন সম্পদ। পুলিশি তৎপরতায় তা উদ্ধার করা সম্ভব হয়। এবারেও তার ব্যক্তিক্রম হল না।

ধান বোঝাই ট্রাক, বাইরে থেকে দেখে বোঝার উপায়ই নেই ভেতরে গুপ্তধন লোকানো আছে। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে, রাজ্যের কাস্টমস আধিকারিকরা হানা দেয় সেই ট্রাকে। উদ্ধার হয় বহুমূল্যবান সম্পদ।

ঘটনার বিবরণ
ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুরে। গত ২৩ শে আগস্ট রাতে বাংলার কাস্টমস আধিকারিকদের কাছে গোপন সূত্রে খবর আসে, বাংলাদেশে পাচার হয়ে যাচ্ছে এদেশের প্রাচীন কিছু ভগবানের মূর্তি। তৎক্ষণাৎ পরিকল্পনা মাফিক কালিয়াগঞ্জে হানা দেয় আধিকারিকরা। ধান বোঝাই ট্রাক দেখে প্রথমটায় ভুল হলেও, সেই ট্রাকের ভেতর থেকেই বেরল ২৫ টি প্রাচীন মূর্তি।

উদ্ধার হয় প্রাচীন মূর্তি
চোরাচালান রুখতে সক্ষম হয়ে শুল্ক আধিকারিকরা উদ্ধারকৃত মূর্তি উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যায়েলের আধীনে অক্ষয় কুমার মৈত্র হেরিটেজ যাদুঘরের বিশেষজ্ঞদের কাছে পাঠিয়ে দিয়েছেন। সেখান থেকেই বিভিন্ন পরীক্ষা নিরিক্ষার মাধ্যমে মূর্তি গুলি সম্বন্ধে আরও বিস্তারিত তথ্য জানা সম্ভব হবে।

উদ্ধারকৃত জিনিসের বর্ণনা
জানা গিয়েছে, পার্বতী, মনসা, বিষ্ণু ও সূর্যের পাথরের মূর্তি ওই ট্রাক থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। হিন্দু ও জৈন মন্দিরের প্রতিমা এবং ব্রোঞ্জ আর অক্টোটো অ্যালো দিয়ে সাতটি ধাতব নিদর্শনও ছিল সেখানে। সেইসঙ্গে উদ্ধার করা হয় ১১টি পোড়ামাটির মূর্তিও। ধারণা করা যায়, এই মূর্তিগুলি নবম থেকে ষোড়শ শতকের। চোরাকারবারিরা ভারতের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এই মূর্তি গুলি পাচারের উদ্দ্যেশ্যে সংগ্রহ করেছিল, যার দাম প্রায় ৩৫ কোটি টাকারও বেশি।

Related Articles

Back to top button