টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

জমা পড়েছে ৩ লক্ষ ৮১ হাজার আবেদন পত্র, খতিয়ে দেখেই শুরু হবে ‘দুয়ারে ত্রাণ’-র কাজ

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের (cyclone yaas) তান্ডবের পর, ‘দুয়ারে ত্রাণ’ (Duare Tran) কর্মসূচি শুরু করেছিল রাজ্য সরকার। প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষদের পাশে দাঁড়াতে এই প্রক্রিয়া চালু করা হয়েছিল। একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আবেদন পত্র জমা দিতেও বলা হয়েছিল। আর সেই আবেদন পত্র জমা দেওয়ার শেষ সময়ও অতিক্রম করে গেছে। ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে ভেরিফিকেশন পর্বও।

নবান্ন সূত্রে খবর, আবেদন পত্র জমা পড়েছে প্রায় প্রায় ৩ লক্ষ ৮১ হাজার। যার মধ্যে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা থেকে এসেছে সবথেকে বেশি আবেদন পত্র, প্রায় ১৬২৩৭১ জনের। পূর্ব মেদিনীপুর থেকে আবেদন পত্র এসেছে ১১৭৬৫১জনের। উত্তর ২৪ পরগনা থেকে ৫১৭৮৪ টি, পশ্চিম মেদিনীপুর থেকে ৩০০৩৯ টি, হাওড়া থেকে ১৮৮০১ টি, হুগলি থেকে ৩০২ টি এবং বীরভূম থেকে ২৫২ টি আবেদন পত্র জমা পড়েছে।

নবান্ন থেকে জানিয়েছে, জমা পড়া আবেদনের মধ্যে ইতিমধ্যেই ৪০ শতাংশের ভেরিফিকেশন পর্ব শেষ হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থদের ব্যাংক মারফত জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহ থেকেই ক্ষতিপূরণের অর্থ দেওয়া শুরু করা হবে। এই কাজের জন্য ১০০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও জানা গিয়েছে, এই জমা পড়া আবেদন পত্রের মধ্যে বেশিরভাগই এসেছে বাড়ি ভাঙে যাওয়ার, প্রায় ২ লক্ষ ৪৭ হাজার। আংশিক ভাঙার আবেদন এসেছে প্রায় ১ লক্ষ ৪২৩৭ টি। পানের বরজ ক্ষতি হওয়ার আবেদন পড়েছে ২০৪৩২ টি। চাষের জমি ক্ষতি হয়েছে ৩৪৯৪২ টি এবং গবাদি পশু মৃত্যুর আবেদন পত্র জমা পড়েছে ৪২০৬৮ টি।

Related Articles

Back to top button