টাইমলাইনআন্তর্জাতিক

নাম পাল্টাতেই ৫ টাকার পাঁপড় হয়ে গেল ৫০০ টাকা! রেস্তরাঁর কাণ্ডতে শোরগোল

বাংলা হান্ট ডেস্ক: খাওয়ার পর শেষ পাতে পাঁপড় খেতে কে না ভালোবাসেন? মুচমুচে এই খাদ্যবস্তুটি সমগ্ৰ দেশজুড়েই তুমুল জনপ্রিয়। যদিও, দেশের বাইরেও নিজের উপস্থিতি বজায় রেখেছে পাঁপড়। তবে, স্বাদ এবং ধরণ একই থাকলেও বিদেশের মাটিতে গিয়ে নাম পরিবর্তিত হয়ে গিয়েছে পাঁপড়ের। আর সেই সুযোগেই এক লাফে বেড়ে গিয়েছে দামও। মূলত, সম্প্রতি মালয়েশিয়ার (Malaysia) একটি রেস্তোরাঁর কর্মকান্ডে চোখ কপালে উঠেছে সবার।

শুধু তাই নয়, নাম পাল্টিয়েই ৫ টাকার পাঁপড় সেখানে বেমালুম বিক্রি হচ্ছে ৫০০ টাকায়। আর এই ঘটনা সামনে আসতেই রেগে আগুন নেটিজেনরা। এমনকি, এই সংক্রান্ত একটি ছবিও তুমুল ভাইরাল হতে শুরু করেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেটি দেখে অবাক হয়েছেন সকলেই। মূলত, মালয়েশিয়ার ওই রেস্তোরাঁয় “এশিয়ান নাচোস” (Asian Nachos) নামে বিক্রি করা হচ্ছে পাঁপড়। এমতাবস্থায়, অনলাইনে বিক্রির ক্ষেত্রে এই পাপড়ের দাম রাখা হয়েছে ৫০০ টাকা।

এদিকে, এই প্রসঙ্গে ভাইরাল হওয়া ছবিটিতে দেখা গিয়েছে যে একটি প্লেটে সাত থেকে আটটি পাঁপড় এবং একটি পাত্রে স্যালাড রয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে অ্যাভোকাডো, তেঁতুলের সালসা এবং ক্রিস্পি শ্যালট। আর এই ছবিটিই এখন সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করছে।

ইতিমধ্যেই পাঁপড় তথা “এশিয়ান নাচোস”-এর বিজ্ঞাপনের ওই ছবিটি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম টুইটারে @NaanSamantha নামের এক ব্যবহারকারী শেয়ার করেন। যেটি প্রতিবেদনটি লেখার সময় পর্যন্ত ৫৮৩.৭ হাজার জন দেখেছেন। পাশাপাশি, ৯ হাজারেরও বেশি জন এই পোস্টটি লাইক করেছেন। এছাড়াও, ১,৮০০-রও বেশি জন এই পোস্টটি রিটুইট করেন।

এমতাবস্থায়, ভাইরাল হওয়া এই ছবি দেখে ব্যবহারকারীরা বিভিন্ন প্রতিক্রিয়াও জানিয়েছেন। একজন ব্যবহারকারী জানিয়েছেন যে, মালয়েশিয়ায় স্থিত ওই রেস্তোরাঁটির নাম”‘Snitch by the Thieves”। পাশাপাশি রেস্তোরাঁর ওয়েবসাইট অনুসারে জানা গিয়েছে, “এশিয়ান নাচোস”-এর দাম ২৫ মালয়েশিয়ান রিঙ্গিট, যা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৫০০ টাকার সমান।

Related Articles