টাইমলাইনভারত

২৮ বছরের পুত্রবধূকে বিয়ে করলেন ৭০ বছরের শ্বশুর! কারণ জানলে অবাক হবেন

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বর্তমান সময়ে দেশজুড়ে প্রায়শই বিবাহ সংক্রান্ত একাধিক অবাক করা ঘটনা উঠে এসেছে খবরের শিরোনামে। সেই রেশ বজায় রেখেই এবার এক নজিরবিহীন ঘটনা সামনে এল উত্তরপ্রদেশ (Uttar Pradesh) থেকে। এই প্রসঙ্গে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, সেখানে এক ৭০ বছরের বৃদ্ধ তাঁর ২৮ বছর বয়সী পুত্রবধূকে বিয়ে করেছেন। হ্যাঁ, প্রথমে বিষয়টি জেনে অবাক হয়ে গেলেও এবার ঠিক এই ঘটনাই ঘটেছে। পাশাপাশি, ইতিমধ্যেই ঘটনাটি উঠে এসেছে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতেও।

crockex

এছাড়াও, সোশ্যাল মিডিয়া (Social Media)-তেও এই সংক্রান্ত ছবি এবং তথ্য ভাইরাল হতে শুরু করেছে। যেখান থেকে জানা গিয়েছে ১২ বছর আগে বদলগঞ্জ কোতোয়ালি এলাকার ছাপিয়া উমরাও গ্রামের বাসিন্দা কৈলাশ যাদবের স্ত্রী মারা যান। তাঁদের মোট চার সন্তান রয়েছে। যার মধ্যে কৈলাশ যাদবের তৃতীয় সন্তানের স্ত্রী হলেন পূজা। পূজার স্বামীও মারা যান। এমতাবস্থায়, পুত্রবধূ পূজাকেই বিয়ে করে নেন কৈলাশ যাদব। জানা গিয়েছে, দু’জনের পারস্পরিক সম্মতিতেই তাঁরা বিয়ে করেছেন। পাশাপাশি, পূজা তাঁর এই নতুন সম্পর্ক নিয়ে খুশিও।

খবর অনুযায়ী, বারহালগঞ্জ থানার চৌকিদার কৈলাশ যাদব তাঁর পুত্রবধূ পূজাকে একটি মন্দিরে বিয়ে করে সাত পাকে বাঁধা পড়েন। ওই অনুষ্ঠানে তাঁদের আত্মীয়দের পাশাপাশি গ্রামবাসীরাও উপস্থিত ছিলেন। যদিও, এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মিলেছে একাধিক প্রতিক্রিয়াও। কেউ কেউ জানিয়েছেন, স্বামীর মৃত্যুর পর পূজা একদম নিঃসঙ্গ হয়ে পড়েছিলেন। অন্য একজনের সাথে তাঁর বিয়ে হলেও সেই পরিবার তাঁর পছন্দ হয়নি। তাই তিনি ফের তাঁর আগের স্বামীর বাড়িতে ফিরে আসেন। পাশাপাশি, সেখানেই তিনি তাঁর শ্বশুরকে বিয়ে করতে রাজি হন।

Bangla,Bengali,Bengali News,Bangla Khobor,Bengali Khobor,Barhalganj police station,Uttar Pradesh,daughter-in-law,social media,Father in law,Marriage,India,National,Viral

কি জানিয়েছে পুলিশ: এদিকে, এই বিয়ের প্রসঙ্গটি সোশ্যাল মিডিয়ার ওপর ভর করে পৌঁছে যায় পুলিশের কাছেও। এই প্রসঙ্গে বারহালগঞ্জের স্টেশন ইনচার্জ জানান, ভাইরাল হওয়া ছবি থেকেই আমরা এই বিয়ের কথা জানতে পেরেছি। এই ব্যাপারে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। পাশাপাশি, তিনি আরও বলেন, এটা দু’জনের পারস্পরিক ব্যাপার। কারও কোনো অভিযোগ থাকলে পুলিশ তদন্ত করে দেখতে পারে।

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker