টাইমলাইনভারত

দুবাইতে চাকরি ছেড়ে ফিরেছেন দেশে, এখন উৎপাদন করেন ৫৫০ ধরণের ফল

বাংলাহান্ট ডেস্ক :দুবাই থেকে চাকরি ছেড়ে নিজের বাড়িতে ফিরে এসে ফলের চাষাবাদ শুরু করেছিলেন কিন্তু তখন তার ব্যর্থতা তাকে সবার থেকে দূরে সরিয়ে দিয়েছিলো। বন্ধুবান্ধব এবং আত্মীয়স্বজনদের এই সিদ্ধান্তে অদ্ভুত বলে মনে হয়েছিল। কিন্তু আজ তার সাফল্য এক নতুন দিশা দিচ্ছে অনেককেই। উইলিয়াম ম্যাথুস নামক এই যুবক চাকরি করতে দুবাই যান। কিন্তু সেখানে অনেক অসুবিধার পর শেষ পর্যন্ত ২০১০ সালে তিনি দুবাইয়ের চাকরি ছেড়ে কেরালায় নিজের বাড়িতে ফিরে আসেন।
তিনি নিজের জমিতে চাষাবাদ শুরু করেন, তার আট একর জমিতে ৫৫০ জাতের গ্রীষ্মমন্ডলীয় ফল তিনি ফলাতে সক্ষম হয়েছেন বিগত দশ বছরে।

৪২ বছর বয়সী উইলিয়াম জানায় ১৯ জাতের খেজুর, ৭ প্রকারের পেয়ারা এবং ৮ প্রকারের প্যাশন ফল এবং ৩০ প্রকারের লেবুর হয় তার জমিতে। মিকি মাউস ফল, মোম অ্যাপল, হিমালয়ান রেকেরি,আমেরিকান কোকোনিয়া,ব্রাজিলিয়ান জাবোটিকবা, রোলিনিয়া নানা জাতের বিদেশী ফলও হয়।

এছাড়াও তার খামারে দুটি পুকুর রয়েছে যার মধ্যে অনেক ধরণের মাছ রয়েছে। চাষাবাদের পাশাপাশি তিনি গবেষণাও করছে কিভাবে আরও ভাল চাষ করা যায়। ভারত এবং বিদেশের অনেক খামারেও গেছেন তিনি।

কৃষিকাজের দিকে নজর রাখার পাশাপাশি তিনি আইটি খাতে এমন কিছু করার কথাও ভাবেন যাতে আইটিতে তার দক্ষতা নষ্ট না হয়।এমনকি তার স্ত্রী একজন শিক্ষিকা তিনি অনেক ছাত্র ছাত্রী পড়ান।তিনি মাভার ইন্সটিটিউশন অফ কম্পিউটার টেকনোলজি (এমআইসিটি) নামে একটি দক্ষতা কেন্দ্র চালু করেছেন, যার লক্ষ্য শিক্ষার্থীদের আইটি, কোডিং এবং কম্পিউটার চালনার প্রাথমিক ধারণাগুলি শেখানো। বর্তমানে ক্লাসে প্রায় 60০ জন শিক্ষার্থী রয়েছে এবং এই কাজটি ধীরে ধীরে গতিতেও বাড়ছে।

Back to top button