টাইমলাইনবিনোদন

সিনেমা তো নয়, যেন যজ্ঞ! ‘মহাভারত’ নিয়ে ছবি বানাতে ভয় পাচ্ছেন আমির খান

বাংলাহান্ট ডেস্ক: আমির খান (Aamir Khan) মানেই মিস্টার পারফেকশনিস্ট। সবকিছু নিখুঁত ভাবে করার তাগিদের জন‍্য এই তকমা পেয়েছেন তিনি। তবে সবকিছু কি সত‍্যিই খুঁতহীন ভাবে করতে পারেন আমির? মানুষ মাত্রেই তো ভুলচুক হয়। আমিরকেও ফ্লপের সম্মুখীন হতে হয়েছে। ‘ঠাগস অফ হিন্দুস্তান’ এর সলিল সমাধি হয়েছিল। সেই ব‍্যর্থতার চার বছর পর ‘লাল সিং চাড্ডা’ নিয়ে ফিরছেন আমির।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ঠাগস অফ হিন্দুস্তানের ব‍্যর্থতার শোক এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেননি। ওই ব‍্যাপারে কোনো আলোচনাতেই যেতে চান না আমির। তবে ওই সাক্ষাৎকারে নিজের স্বপ্নের প্রোজেক্ট ‘মহাভারত’ নিয়েও কথা বলেছেন তিনি। আমিরের কথায়, “আপনি যখন মহাভারত বানাচ্ছেন, কোনো ছবি আপনি বানাচ্ছেন না। বরং আপনি একটা যজ্ঞ করছেন। এটা ছবি নয়, এটা আরো গভীর। আমি এখনো তৈরি নই। আমি শুটিং শুরু করতে ভয় পাচ্ছি।” আমির বলেন, মহাভারত কখনো ব‍্যর্থ করবে না। হয়তো তিনি নিজের দোষেই ব‍্যর্থ হতে পারেন।


আমির বলেন, তিনি নিজের ভুল থেকে ঠেকে শেখেন। কোনো ছবি ব‍্যর্থ হলে তিনি খতিয়ে দেখেন কোথায় ভুল হল। তাঁর মতে, কোনো ছবি ফ্লপ হওয়া মানে সেটা একটা সুযোগ, ভুল থেকে শেখার। আমির বলেন, তিনি আজ যে জায়গায় সেটা তাঁর সফল ছবিগুলোর জন‍্য নয়। বরং ব‍্যর্থগুলোর জন‍্য। ব‍্যর্থতাকে নিজের হৃদয়ের কাছাকাছি রাখেন তিনি। কারণ ওগুলো থেকেই তিনি শিক্ষা পান।

বলিউডে যেভাবে একের পর এক ছবি ব‍্যর্থ হচ্ছে তাতে ভয়ে রয়েছেন আমিরও। উপরন্তু সোশ‍্যাল মিডিয়ায় বয়কটের ডাক। এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন, তিনি নিজের দেশ ভারতকে ভালবাসেন। দয়া করে দর্শকরা যেন তাঁর ছবি দেখতে আসেন।

ট্রোলের ব‍্যাপারে আমির বলেন, “আমার কষ্ট হয়। আমার খারাপ লাগে এটা ভেবে যে, যারা এই ধরনের কথা বলছে তারা মনে মনে ভাবে যে আমি ভারতকে ভালবাসি না। কিন্তু এটা তো সত‍্যি নয়। এটা সত‍্যিই দুর্ভাগ‍্যজনক যে কিছু মানুষের চিন্তাধারা এমন। দয়া করে আমার ছবি বয়কট করবেন না। আমার ছবি দেখুন।”

Related Articles