টাইমলাইনভারতরাজনীতি

জাতী জেনে অগ্নিবীর নিয়োগ! বিস্ফোরক অভিযোগ তুলে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠলেন AAP নেতা

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ‘অগ্নিবীর’ (Agniveer) প্রকল্প ঘিরে সম্প্রতি রনংদেহী পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় গোটা দেশ জুড়ে। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বিক্ষোভ থেকে শুরু করে হিংসার ঘটনা উঠে আসতে থাকে। সেই পরিস্থিতি বর্তমানে বেশ খানিকটা শান্ত হয়েছে। তবে এর মাঝেই অগ্নিবীর প্রকল্প ঘিরে কেন্দ্রের একটি নির্দেশিকা ঘিরে পুনরায় বিতর্ক মাথাচাড়া দিয়ে উঠলো, যা নিয়ে এবার কেন্দ্রকে কটাক্ষ ছুঁড়ে দিলেন আম আদমি পার্টির (Aam Admi Party) সাংসদ সঞ্জয় সিং (Sanjay Singh)। তাঁর প্রশ্ন, “সরকার অগ্নিবীর তৈরি করতে চাইছে, নাকি জাতিবীর?”

আসলে সম্প্রতি কেন্দ্র সরকার দ্বারা অগ্নিবীর প্রকল্পের জন্য একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়, যেখানে জাত এবং ধর্মের শংসাপত্র ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক এর আগেও অন্যান্য একাধিক মহল থেকে কেন্দ্রের সমালোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে আর এবার সেই পথে হাঁটলো আম আদমি পার্টি। এদিন আপ সাংসদ সঞ্জয় সিং বলেন, “ভারতের ইতিহাসে প্রথমবার হতে চলেছে, যখন আর্মি নিয়োগ করার জন্য জাত জানতে চাওয়া হচ্ছে।” এর পরই তিনি কেন্দ্রকে উদ্দেশ্য করে প্রশ্ন করেন, “আপনারা কি অগ্নিবীর বানাতে চাইছেন, নাকি জাতিবীর?”

একটি স্ক্রিনশট শেয়ার করার পাশাপাশি তিনি লেখেন, “মোদী সরকারের নিকৃষ্ট চেহারা গোটা দেশবাসীর সামনে এসে গিয়েছে। মোদীজি, আপনি কি দলিত কিংবা আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষকে যোগ্য বলে বলে বিবেচনা করেন না? তারা কি সেনা নিয়োগের জন্য উপযুক্ত নয়? আপনি অগ্নিবীর বানাতে চাইছেন, নাকি জাতিবীর? অতীতে কখনো এই ঘটনা ঘটেনি।”

উল্লেখ্য, অতীতে কেন্দ্র সরকার দ্বারা অগ্নিবীর প্রকল্প ঘোষণা করার পরেই গোটা দেশে বিক্ষোভ শুরু হয়। চুক্তি ভিত্তিক সেনা নিয়োগের প্রতিবাদে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ভাঙচুর থেকে শুরু করে ঘরবাড়ি পোড়ানোর মতো একাধিক ঘটনার সামনে আসতে থাকে। পরবর্তীতে অবশ্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপে সেই পরিস্থিতির শান্ত করা গেলেও ইতিমধ্যে আবার শুরু হয়েছে বিতর্ক।

সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে কেন্দ্রের একটি নির্দেশিকা, যেখানে সেনা নিয়োগের জন্য জাত এবং ধর্মের সার্টিফিকেট চাওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে এই ঘটনায় বিহারের নেতা উপেন্দ্র কুশওয়াহা কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সমালোচনার সরব হয়েছেন আর এবার কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে কটাক্ষ ছুঁড়ে দিলেন আপ নেতা সঞ্জয় সিং।

Related Articles