টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

মমতা ব্যানার্জীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়! এজলাসে মুখ্যমন্ত্রী প্রসঙ্গে কী বললেন তিনি?

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় (Justice Abhijit Ganguly)। নাহ! এই প্রথমবার নয়, এর আগেও বঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসা শোনা গিয়েছিল বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের গলায়। বৃহস্পতিবার ফের একটি মামলার শুনানি শেষে হঠাৎই মমতা বন্দোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) প্রশংসা করলেন বিচারপতি।

তবে ঠিক কি বললেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়? এদিন মামলা শেষে সরকারি আইনজীবী ভাস্কর বৈশ্যকে বিচারপতি বলেন, ‘চন্দ্রিমাদিকে বলে দেবেন, আর কোনও মন্তব্য করব না। আমি কেন খারাপ কথা বলব? মুখ্যমন্ত্রী ভালো কাজ করছেন।’ ‘আমি আর কোনও অতিরিক্ত মন্তব্য করব না। কারণ আমার কথার মানে অন্যরকম হয়ে যাচ্ছে”। বিচারপতি এও বলেন, সেদিন অন্য একটা প্রেক্ষিতে ধেড়ে ইঁদুর বলেছিলাম। কিন্তু সেটার অন্যরকম মানে ধরা হয়েছে।”

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে এসএসসি-তে ভুয়ো সুপারিশ প্রাপ্তের তালিকা বিষয়ে বলতে গিয়ে বিচারপতি অভিজিৎ মন্তব্য করেছিলেন, ‘ধেড়ে ইঁদুর বেরোবে’। এর পরই বিচারপতির আই বক্তব্য নিয়ে শোরগোল পরে যায়।

অনেকেই বিচারপতিকে খোঁচা দিয়ে কথা বলতেও ছাড়েননি। বিচারপতির এই মন্তব্য প্রসঙ্গে তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন বলেছিলেন, ‘বিচারব্যবস্থা নিয়ে কিছু বলব না। কিন্তু কেউ কেউ কোনও কোনও কোনও জায়গায় বসে নিজেকে ব্যতিক্রমী করে তোলার চেষ্টা করেন। এটা দেখে আমরা অবাক হই।’ বিচারপতিকে বিধঁতে ছাড়েননি কুণাল ঘোষও। অনেকেই আবার বলেছিলেন বিচারপতির ভাষা সংযত হওয়া উচিৎ।

justice,

তবে এদিন এজলাসে বিচারপতি মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসা করার পর কুণাল ঘোষও বিচারপতি প্রসঙ্গে বলেন, ‘বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়কে আঘাত করার কোনও উদ্দেশ্য আমার ছিল না। ওনার কিছু মন্তব্য কানে আসে। তার প্রতিবাদ করছি। যিনি মাথা জানেন, ঢাকি জানেন, তাকে সাক্ষী করা হোক। সিবিআইয়ের উচিত তাকে ১৬৪ করা। মুখ্যমন্ত্রী ও সরকার ভালো কাজ করছেন, এটা সবাই জানে।’

Related Articles