টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভারতরাজনীতি

ত্রিপুরার নির্বাচনী ফল প্রকাশ হতেই ‘কু” অভিষেকের, ‘এটা তো শুরু, এবার হবে আসল খেলা’

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ আগরতলা পুরসভা, ছয়টি নগর পঞ্চায়েত এবং সাতটি পুর পরিষদ মিলিয়ে মোট ৩৩৪ টি আসনে গত ২৫ শে নভেম্বর নির্বাচন হয়েছে ত্রিপুরায় (tripura)। আজ অর্থাৎ রবিবার প্রকাশিত হয় ফলাফল। আর ফল প্রকাশের পরই ট্যুইট করেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (abhishek banerjee)।

ত্রিপুরার পুরভোটের ফল প্রকাশের পর দেখা যায় ৩৩৪ টি আসনের মধ্যে ৩২৯ টিতেই জয়লাভ করেছে বিজেপি শিবির। প্রথমবার নির্বাচনে অংশ নিয়ে একটি আসনে জয় আনতে পেরেছে তৃণমূল শিবির। এমনকি ত্রিপুরার মুসলিম অধ্যুষিত এলাকাতে দাঁতও বসাতে পারল না মমতা বাহিনী।

তবে ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পর কর্মীদের মনোবল বাড়াতে ট্যুইটারে বার্তা দিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি লেখেন, ‘খুবই সামান্য উপস্থিতি থেকে একটি দলের পক্ষে পুরভোটে অংশ নেওয়া এবং ২০ শতাংশের বেশি ভোট পেয়ে বিরোধী দলের স্থান পাওয়া, খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি ব্যাপার। সবে তো হল শুরু, এবার হবে আসল খেলা’।

তিনি আরও লেখেন, ‘মাত্র ৩ মাস আগে আমরা ত্রিপুরায় রাজনৈতিক যাত্রা শুরু করেছিলাম। কর্মীদের এই সাহসিকতাকে অভিনন্দন জানাই। তবে ত্রিপুরার গণতন্ত্রকে ধ্বংস করতে কোন সুযোগই হাতছাড়া করেনি বিজেপি শিবির’। নিজের বার্তার মধ্য দিয়ে আগামী বিধানসভা নির্বাচনকেই যে টার্গেট করছে তৃণমূল শিবির, তা বুঝিয়ে দিলেন অভিষেক।

প্রসঙ্গত, আগরতলার নির্বাচনের দিনে শাসক দল বিজেপির বিরুদ্ধে ভোটারদের মারধর এবং বিরোধী দলের উপর হামলার অজস্র অভিযোগ উঠেছিল। যদিও, বিজেপির তরফ থেকে সমস্ত অভিযোগই খারিজ করে দেওয়া হয়। অন্যদিকে, অশান্তির অভিযোগ থাকলেও ৮০ শতাংশ ভোট পড়েছিল সেদিন।

ভোট শেষ হতেই আগরতলার পূর্ব ও পশ্চিম থানায় গিয়ে সিপিএম এবং তৃণমূল নেতৃত্ব ধরনায় বসেছিল। তাঁদের দাবি ছিল ভোট বাতিল করে পুনরায় ভোট করানো। এমনকি তৃণমূলের তরফ থেকে পুনরায় ভোটের জন্য সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছিল।

Related Articles

Back to top button