টাইমলাইনবিনোদন

খাবার কেনার মতো টাকা ছিল না! বিদেশে কলেজ ছেড়ে বাবার পাশে দাঁড়িয়েছিলেন ছেলে অভিষেক

বাংলাহান্ট ডেস্ক: বলিউড মানেই কোটিপতিদের ইন্ডাস্ট্রি। তাদের মধ‍্যেও আবার সর্বাধিক ধনী তারকাদের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন অমিতাভ বচ্চন (amitabh bachchan)। সর্বাধিক সম্পত্তির হিসেবে বলিউড অভিনেতাদের মধ‍্যে তিনি দ্বিতীয়। কিন্তু সবসময় এমনি প্রভাব প্রতিপত্তি ছিল না বচ্চনদের। এমনো দিন গিয়েছে যখন নিজের কর্মচারীদের থেকে টাকা ধার করতে হয়েছিল অমিতাভকে। কোটি টাকার ঋণ শোধ করতে বাবার পাশে দাঁড়িয়েছিলেন অভিষেক (abhishek bachchan)।

সম্প্রতি একটি অনুষ্ঠানে অতিথি হয়ে এসে পরিবারের এই দুঃসময়ের কিছু অজানা কথা শেয়ার করেন জুনিয়র বচ্চন। সময়টা নব্বইয়ের দশকের। আর্থিক দিক থেকে খুব খারাপ সময়ের মধ‍্যে দিয়ে যাচ্ছিলেন তাঁরা। ব‍্যবসায় বড় ক্ষতির মুখ দেখেছিলেন বিগ বি। খাবার কেনার মতোও টাকা ছিল না অমিতাভের কাছে। বাধ‍্য হয়ে নিজের কর্মচারীদের কাছ থেকেই টাকা ধার করেছিলেন তিনি।


সে সময়ে আমেরিকায় কলেজে পড়ছিলেন অভিষেক। পরিবারের দুর্দশার কথা শুনে বিদেশে বসে থাকতে পারেননি তিনি। তিনি বলেন, “গোটা পরিবার যে তাঁর পাশে আছে এটা ভেবে খুব আশ্বস্ত বোধ করেন বাবা। আমি বস্টনে বসে থাকব আর বাবা এদিকে চিন্তা করবে যে রাতের খাবারটা কীভাবে জোগাড় করবেন সেটা হতে পারে না। পরিস্থিতি তখন অতটাই খারাপ ছিল। এটা প্রকাশ‍্যেও বলেছেন বাবা। কর্মচারীদের থেকে টাকা ধার করে খাবার কিনেছিলেন তিনি। ওঁর সঙ্গে থাকতে পেরে আমি ধন‍্য।”

বাবার পাশে দাঁড়াতে সে সময় কলেজ ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন অভিষেক। সেকথা অমিতাভকে জানাতে খুব খুশি হয়েছিলেন তিনি। অভিষেকের অভিনয় জগতে আসার আলোচনা আগেই হয়ে গিয়েছিল বলে জানান অভিনেতা। ওই পরিস্থিতিতেও অমিতাভ ছেলেকে পরামর্শ দিয়েছিলেন, অভিনয়ে আসবে ভাল কথা। কিন্তু তার আগে হিন্দিটা ভাল করে রপ্ত করতে হবে। কারণ শেক্সপিয়ারের ভাষা এখানে চলবে না।

নব্বইয়ের দশকে তাঁর ব‍্যবসা এবিসিএল কর্পোরেশনের ভরাডুবির কথা আগেও প্রকাশ‍্যে বলেছেন অমিতাভ। সে সময় তাঁর পরিস্থিতি দেখে প্রযোজকরা কাজ দেওয়াও বন্ধ করে দিয়েছিলেন। সে সময়েই পরিবারের সাহায‍্য পেয়েছিলেন অমিতাভ। পাশাপাশি ‘মহব্বতে’ ছবিতে অভিনয় এবং ‘কউন বনেগা ক্রোড়পতি’র সঞ্চালনার প্রস্তাব তাঁকে হাতে চাঁদ পাইয়ে দিয়েছিল।

Related Articles

Back to top button