টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

ম্যারাথন জিতে সবুজ সাথী প্রকল্পের সাইকেল বিতর্ক দুর্গাপুরে

ম্যারাথনের পুরস্কার হিসেবে সবুজ সাথী প্রকল্পের  সাইকেল এই নিয়ে নতুন করে শুরু হয়েছে বিতর্ক । নেতাজীর জন্মদিন উপলক্ষে দুর্গাপুরে ম্যারাথনের আয়োজন করা হয়। সেখানে অংশগ্রহন কারিদের মধ্যে প্রথম হওয়া যুবককে পুরস্কার হিসেবে সবুজ সাথী প্রকল্পের  সাইকেল দেওয়া হয়। তারপরেই সেই নিয়ে শুরু হয় ঝামেলা। প্রসঙ্গত সবুজ সাথী প্রকল্পের সাইকেল মুলত স্কুলের ছাত্র ছাত্রীদের জন্য তোলা থাকে ।

কিন্তু সেখানে ম্যারাথনে কেন দেওয়া হবে এই সাইকেল , সেই নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।বৃহস্পতিবার দুর্গাপুর-ফরিদপুর ব্লকে সাইকেল বিতর্কে চরম অস্বস্তিতে পড়েছে স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব।   এরপর এই নিয়ে অনেক কথা শুনতে হয়েছে ম্যারাথন আয়োজক সংস্থাকে। পরিস্থিতি এমন হয়ে ওঠে পরে সেই পুরস্কার ফিরিয়ে নিতে হয়ে ওই যুবকের থেকে। এই দিন ম্যারাথনের পর প্রথম স্থানের অধিকারীকে পুরস্কার তুলে দেন স্থানীয় ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক, স্থানীয় পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি এবং জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ।

ম্যারাথনে প্রথম স্থানের অধিকারী ওই যুবকের নাম বিদ্যুৎ বাগদি।  ওইদিন বিদ্যুৎ বাগদির হাতে পুরস্কার তুলে দেন স্থানীয় বিডিও মৃণাল কান্তি বাগচি, স্থানীয় পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শ্রীমতি হেমব্রম এবং জেলা কর্মাধ্যক্ষ সুজিত মুখার্জী।কিন্তু স্থানীয় মানুষ কিচুতেই এই অন্যায় মেনে নিতে পারছেন না। তারা এই অনিয়মের প্রতি বিচার চেয়েছেন। তারা চান এই বেনিয়মের তদন্ত করা হোক। স্কুলের ছেলে মেয়েদের  জন্য বরাদ্দ করা এই সাইকেল কেন এভাবে দেওয়া হবে ।

সেটা একেবারেই মেনে নেওয়া সম্ভব নয়। এইদিনের এই ঘটনায় বিডিও মৃণাল কান্তি বাগচি তিনি জানান এই ঘটনা খুবই খারাপ। এমন কি তিনি বলেন এই ঘটনা অপ্রত্যাশিত। তাছাড়া এখন গ্রামের লোকেরা এই ব্যাপার নিয়ে এখনো ক্ষুব্ধ হয়ে আছেন।  এখন দেখার বিষয়  কিভাবে সেই অপ্রত্যাশিত ঘটনার সঠিক বিচার হয়।

Back to top button