টাইমলাইনবিনোদনভিডিও

কেউ আনলেন পুজোর প্রসাদ, কেউ পায়েস! আদৃতের জন্মদিনে ভক্তদের ঢল স্টুডিওতে

বাংলাহান্ট ডেস্ক: বড়পর্দায় অভিষেক করে তারপর ছোটপর্দায় পা রেখেছেন আদৃত রায় (Adrit Roy)। কিন্তু তাঁকে কাঙ্খিত জনপ্রিয়তা এনে দিয়েছে ছোটপর্দাই। জি বাংলার ‘মিঠাই’ (Mithai) এর দৌলতে আজ আকাশ ছোঁয়া জনপ্রিয়তা তাঁর। ‘উচ্ছেবাবু’ আর ‘সিডি বয়’ বলতে অজ্ঞান আট থেকে আশি। উচ্ছেও যে মিষ্টি হতে পারে তা আদৃত না থাকলে কি কেউ জানতেন?

সেই আদৃতেরই আজ জন্মদিন। অনুরাগীরা তো উচ্ছ্বসিত হবেনই। আর নিজের ভক্তদের মন রাখতেই এক বিশেষ ব‍্যবস্থা করেছিলেন অভিনেতা। গতকালই তিনি জানিয়ে দিয়েছিলেন, আজ অর্থাৎ ২৫ মে ভারতলক্ষ্মী স্টুডিওর দরজা সর্বক্ষণের জন‍্য খোলা থাকবে সবার জন‍্য‌।


ব‍্যস, এটারই অপেক্ষা ছিল অনুরাগীদের। অন‍্যান‍্য দিনে তো ভক্তরা এসে হাজির হনই আদৃতকে এক ঝলক দেখার জন‍্য। আর এমন একটা দিনে এত ভাল সুযোগ পেয়ে যে অনুরাগীদের ঢল নামবে তা আগে থেকেই জানা ছিল। আর কার্যক্ষেত্রে হয়েছেও তাই।


এদিন ভারতলক্ষ্মী স্টুডিওতে কার্যত তিল ধারণেরও জায়গা ছিল না। সেটের বাইরে নিরাপত্তারক্ষীদের কড়া বেষ্টনীর মাঝে দাঁড়িয়ে অনুরাগীদের সঙ্গে দেখা করেছেন আদৃত। এক একজন করে তাঁর কাছে যাওয়ার অনুমতি ছিল। ভক্তরা রীতিমতো পুজো দিয়ে, পায়েস বানিয়ে নিয়ে এসেছিলেন।


কেউ পুজোর ফুল ছুঁইয়ে প্রসাদ খাওয়ালেন, আবার কেউ পায়েস খাইয়ে দিলেন বার্থডে বয়কে। আদৃত মজা করে জানালেন, উচ্ছেবাবু ‘আই হেট সুইটস’ বললেও বাস্তবে কিন্তু তিনি মিষ্টি পছন্দ করেন। পাশাপাশি এদিন মিঠাই পরিবারের সদস‍্য এবং অনুরাগীদের সঙ্গে কেকও কেটেছেন আদৃত।

এছাড়াও সোশ‍্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন উদয় প্রতাপ সিং, কৌশাম্বী চক্রবর্তীরা। কেক কাটার ভিডিওর সঙ্গে আদৃতের একটি মিষ্টি ছবিও শেয়ার করেছেন রাতুল ওরফে উদয় প্রতাপ সিং। সঙ্গে তিনি লিখেছেন, ‘আদৃত তুমি এমন অসাধারণ একজন মানুষ যে সত‍্যিই জেন্টলম‍্যান। সফরটা সত‍্যিই দারুন ছিল আর দু বছর ধরে তোমাকে কাছ থেকে দেখার সৌভাগ‍্য হয়েছে আমার। সংখ‍্যাটা আরো বাড়তে থাকুক। ভালবাসি বাবা।’

Related Articles

Back to top button