টাইমলাইনভারত

নিজের বুকে ২৩ টি গুলি খেয়েও, জঙ্গি আজমলকে জীবন্ত ধরেছিলেন তুকারাম অম্বলে

বাংলা হান্ট ডেস্ক : আজ থেকে ঠিক এগারো বছর আগে শীতের শুরুটা রক্তাক্ত এক কাহিনি দিয়েই শুরু হয়েছিল। তখন জঙ্গিদের 23 টি গুলিতে ঝাঁঝরা হয়ে গিয়েছিল তুকারাম ওম্বলের শরীরে, সেই ছবি দেখলে আজও চলো গা শিউরে ওঠে। তবু জঙ্গিদের গুলি খেয়ে  প্রাণ দিলেও আজমল কাসভ কে আটকে রাখার মরণ পণ লড়াই চালিয়েছিলেন,কিন্তু সেই তুকারামের নাম মুম্বই হামলা থেকে কার্যত মুছে গিয়েছে।

হয়তো তার পরিচয় আমরা অনেকেই জানি না, তিনি ছিলেন একজন সামান্য পুলিশ কনস্টেবল। দেশের মাটি যখন রক্তাক্ত হয়েছে ঠিক তখনই নিজের প্রাণ সঁপে দিয়ে মুম্বাই হামলার অন্যতম জঙ্গি আজমল কাসভ কে ধরে রেখেছিলেন তিনি।  2008, 26 নভেম্বর তারিখে কর্তব্যরত অবস্থায় ওয়াকি টকি তে ছিলেন তুকারাম, ঠিক সেই সময় কয়েকজন জঙ্গি একটি স্কোডা গাড়ি ছিনতাই করে  পালাচ্ছিল , একই সঙ্গে যাওয়ার পথে বারবার গুলি ছুড়ছিল।

তবে খবর জানতে পেরে সঙ্গে সঙ্গেই মুম্বই দেবী নগর থানার পুলিশ গাড়ি আটকানোর জন্য উঠে পড়ে লাগে, যদিও তাতে সাফল্য পেয়েছিল কিন্তু মুহূর্তের মধ্যে পুলিশ ও জঙ্গিদের পাল্টা গুলির লড়াইয়ে এক জঙ্গি মারা যায়, এর পর মুম্বই হামলার মূল চক্রী আজমল কাসব পুলিশ কর্মীদের উপর এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে।

একপ্রকার  শূন্য হয়ে পড়েছিলেন পুলিশকর্মীরা এমত অবস্থায় আজমলের গুলির সামনে নিজেকে দাঁড় করিয়ে দেয় তুকারাম, যদিও আজমল ছাড় পায়নি, তুকারাম নিজের প্রাণ বিসর্জন দিয়ে হত্যাকারীকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়ার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করে।

পরে পুলিশ ধরেও ফেলে আজমলকে কিন্তু পুলিশের হাতে সঁপে দেওয়ার পরেই দেশের মাটিতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তুকারাম। হ্যাঁ তিনিই সেই তো কারাম যার জন্য মুম্বই হামলার মূল চক্রী ধরা পড়ছিলেন অথচ দেশের অধিকাংশ মানুষ তাঁর নাম, তার অবদান জানেন না। আজ সেই মুম্বই হামলা দিবসেই তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা জানাই আমরা।

Back to top button