টাইমলাইনবিনোদনভিডিও

হাতে স‍্যালাইনের চ‍্যানেল, ক‍্যানসারের চিকিৎসা চলাকালীন হাসপাতালেও নেচেছিলেন ঐন্দ্রিলা, রইল ভিডিও

বাংলাহান্ট ডেস্ক: মৃত‍্যুর পরেও এখনো সোশ‍্যাল মিডিয়ায় ঐন্দ্রিলা শর্মার (Aindrila Sharma) স্মৃতি জ্বলজ্বল করছে। অভিনেত্রীর ফ‍্যানপেজ গুলিতে ভাইরাল পুরনো ছবি, ভিডিও। গত রবিবারেই সোশ‍্যাল মিডিয়া থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন সব‍্যসাচী চৌধুরী। কিন্তু ঐন্দ্রিলার দিদি ঐশ্বর্য শর্মা নেটমাধ‍্যমেই একের পর এক ভিডিও, ছবি শেয়ার করে চলেছেন বোনের।

১ লা নভেম্বর ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার আগেও দু বার ক‍্যানসার আক্রান্ত হয়েছিলেন ঐন্দ্রিলা। দুবারই বিজয়ীর হাসি হেসে সুস্থ জীবনে ফিরেছেন তিনি। ২০১৫ সালে প্রথম বার ক‍্যানসার আক্রান্ত হন ঐন্দ্রিলা। তখনো অভিনেত্রী হননি তিনি। ছয় বছর পর দ্বিতীয় বার ক‍্যানসার ফিরে আসে তাঁর শরীরে। আবারো শুরু হয় কঠিন লড়াই। জটিল চিকিৎসার যন্ত্রণায় ভেঙে পড়ত শরীর। তবুও মনের জেদ দমে যেতে দেননি ঐন্দ্রিলা।


তাঁর পাশে একই রকম সাহস, ভরসা নিয়ে থেকেছেন পরিবারের সদস‍্য এবং আপনজনেরা। তাঁদের মুখ থেকে যাতে কখনো হাসি না মুছে যায় সেই দায়িত্বটাও নিয়েছিলেন ঐন্দ্রিলা। অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালেও নেচেছেন তিনি। সম্প্রতি বোনের একটি অদেখা ভিডিও শেয়ার করেছেন দিদি ঐশ্বর্য।

সেখানে দেখা যাচ্ছে, ঐন্দ্রিলার পরনে হাসপাতালের পোশাক। কেমোথেরাপির জন‍্য চুল উঠে গিয়েছে মাথায়। একটি টুপি পরে রয়েছেন তিনি। এক হাতে স‍্যালাইনের চ‍্যানেল‌। সেই হাতটা উঁচু করে ধরেই নাচছেন ঐন্দ্রিলা। ভিডিওটি শেয়ার করে ঐশ্বর্য লিখেছেন, ‘শক্তি, সাহস, যুদ্ধ, জয়ের আর এক নাম আমার বুনু।’

নাচ ছিল ঐন্দ্রিলার প্রাণশক্তি। দ্বিতীয় বার ক‍্যানসারের চিকিৎসা চলাকালীন একটু সুস্থ হতেই নেচে উঠেছিলেন তিনি। সেই ভিডিও শেয়ার করেছিলেন সোশ‍্যাল মিডিয়ায়। আরেকবার নিজের সঙ্গে নাচিয়েছিলেন সব‍্যসাচীকেও। ‘দাদাগিরি’র মঞ্চে ‘দেখো আলোয় আলো আকাশ’ গানের সঙ্গে ঐন্দ্রিলার অসাধারণ নাচ ভুলতে পারেননি কেউই।

২০ দিনের লড়াই শেষ করে চিরঘুমের দেশে পাড়ি দিয়েছেন ঐন্দ্রিলা। রেখে গিয়েছেন তাঁর লড়াই, মনোবল আর হার না মানা জেদের কাহিনি, যা অনুপ্রেরণা দিয়ে যাবে আরো অনেককে। ঐন্দ্রিলা হেরে যাননি। ভালবাসার লড়াইয়ে জিতে গিয়েছেন তিনি।

Related Articles