টাইমলাইনবিনোদন

‘আমার সব্যর ঐন্দ্রিলা’, মেয়ের পুরনো ছবি শেয়ার করে আবেগঘন বার্তা অভিনেত্রীর মায়ের

বাংলাহান্ট ডেস্ক: এক সপ্তাহ কেটে গিয়েছে অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মার (Aindrila Sharma) মৃত্যুর পর। গত রবিবার দুপুরেই খারাপ খবর এসেছিল টেলিপাড়ায়। হাওড়ার এক বেসরকারি হাসপাতালে গত ২০ নভেম্বর শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ঐন্দ্রিলা। এই এক সপ্তাহে টেলি ইন্ডাস্ট্রি শোক ভুললেও ছোট মেয়েকে ভুলতে পারেনি অভিনেত্রীর পরিবারের সদস্যরা এবং তাঁর অনুরাগীরা।

প্রয়াত অভিনেত্রীর দিদি ঐশ্বর্য শর্মার সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেল জুড়ে শুধুই ঐন্দ্রিলার ছবি, ভিডিও। বোনের অবর্তমানে তাঁর সঙ্গে কাটানো স্মৃতিগুলো হাতড়ে বেড়াচ্ছেন তিনি। সম্প্রতি ঐন্দ্রিলার মা শিখা শর্মাও একটি পোস্ট শেয়ার করেছেন। ঐন্দ্রিলা এবং সব্যসাচীর একসঙ্গে করা প্রথম সিরিয়াল ‘ঝুমুর’ এর একটি দৃশ্য শেয়ার করেছেন তিনি। সঙ্গে লিখেছেন, ‘আমার সব্যর ঐন্দ্রিলা’।


সব্যসাচীকে ভালবেসে ‘সব্য’ বলে ডাকতেন অভিনেত্রী। তাঁর পরিবারের সঙ্গেও খুব ভালভাবে মিশে গিয়েছিলেন অভিনেতা। সহ অভিনেতা থেকে বন্ধুত্ব হয়ে প্রেমে গড়িয়েছিল তাঁদের সম্পর্ক। প্রিয় মানুষটার কঠিন সময়ে যেটা করা উচিত সেটাই করেছিলেন সব্যসাচী। ঐন্দ্রিলার দ্বিতীয় বার ক্যানসার ধরা পড়ার পর চিকিৎসার প্রথম দিন থেকে পাশে ছিলেন তিনি।

অভিনেত্রীর শরীর স্বাস্থ্যের নিয়মিত আপডেট দিয়েছেন অনুরাগীদের জন্য। ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার পরেও সবসময় ঐন্দ্রিলার পাশে পাশে ছিলেন সব্যসাচী। অভিনেত্রীর শেষযাত্রায় সঙ্গ দিয়েছিলেন তিনি। ঐন্দ্রিলার বাবার সঙ্গে মুখাগ্নি করেছিলেন। তারপরেও নিয়ম করে অভিনেত্রীর পরিবারের খোঁজখবর সব্যসাচী রাখছেন বলে খবর।

সম্প্রতি সব্যসাচীকে নিয়ে ভুয়ো খবরের বিরুদ্ধে সরব হন বন্ধু সৌরভ দাস। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি লেখেন, ‘সব্যসাচী সু্স্থ আছে। সঙ্গে আছি আমি এবং থাকবো। যারা ভুয়ো খবর ছড়াচ্ছে তারা অসুস্থ, বিব্রত হবেন না। গালাগাল দিয়ে পোস্টটা নোংরা করছি নানা যাতে শেয়ার করে মানুষজনকে জানাতে পারেন সব্যর ব্যাপারে।’ সেই সঙ্গে সৌরভ স্পষ্ট জানান, কোনো রকম ভুয়ো খবর দেখলেই আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে। ঐন্দ্রিলার পরিবার এবং সব্যসাচীকেও শান্তিতে থাকতে দেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন তিনি।

Related Articles