টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচন

তৃণমূল প্রার্থীকে দেখে ‘জয় শ্রী রাম” বলায় শিশুকে ধরে মারধর! কাঠগড়ায় শাসক দল

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ এলাকায় প্রচারে বেরিয়েছিলেন পূর্ব বর্ধমানের তৃণমূল প্রার্থী শম্পা ধারা। সেই সময় এক শিশু উৎসুক হয়ে মিছিল দেখতে বাড়ির বাইরে বের হয় আর মিছিল সামনে আসতেই ‘জয় শ্রী রাম” ধ্বনি তোলে। এরপরই ওই শিশুকে মারধর করার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে। শিশুকে মারধর করার পর পরিজনেরা চরম আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। ঘটনার খবর কানে আসতেই শিশু আর তাঁর পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যান রায়না বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপির প্রার্থী মানিক রায়।

মানিকবাবু ওই শিশুর পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন। এবং দোষীদের উপযুক্ত শাস্তির দাবি করেন। অভিযোগ, পূর্ব বর্ধমানে রায়না বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত বড়বৈনান অঞ্চলের দেনো পঞ্চায়েত এলাকায় দিন কয়েক আগে প্রচারে বেরিয়েছিলেন তৃণমূলের প্রার্থী শম্পা ধারা। সেই সময় এই উৎসুক শিশু মিছিল দেখার জন্য ঘর থেকে বের হয় আর মিছিল সামনে আসতেই জয় শ্রী রাম ধ্বনি দেয়। এরপরই তৃণমূলের কর্মী সমর্থকরা ওই শিশুকে মারধর করে। শাসানি দেয়। ওই শিশুকে ইট দিয়েও মারার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে। বিজেপি প্রার্থী অভিযোগ করে বলেন, শুধু ওই শিশুকেই না, গ্রামের মহিলাদেরও মারধর করা হয় আর পুলিশ এতে সাহায্য করে।

যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল নেতৃত্ব। তাঁরা পাল্টা অভিযোগ করে বলেছে, সেদিন শম্পা ধারা প্রচারে বের হওয়ার পর তাঁর উপর লাঠি, টাঙ্গি নিয়ে হামলা চালায় বিজেপির লোকেরা। আরেকদিকে, বিজেপি তৃণমূলের সমস্ত অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছে। তাঁরা জানিয়েছে, রায়নার মানুষ আর তৃণমূলের সঙ্গে নেই, সেই কারণে তৃণমূল এখন নতুন নতুন ফন্দি পাতছে।

রায়না বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপির প্রার্থী মানিক রায় বলেন, আমরা নিগৃহীত শিশুর পরিবারের পাশে আছি। তৃণমূল পুলিশের সহয়তায় এলাকায় সন্ত্রাসের আবহ তৈরি করতে চাইছে। রায়নার মানুষ তৃণমূলের সঙ্গে নেই বলেই তাঁরা এখন সন্ত্রাস সৃষ্টি করছে। এটা জনগণ মেনে নেবে না।

আরেকদিকে, রায়নার তৃণমূল কংগ্রেসের ব্লক সভাপতি সৈয়দ কলিমুদ্দিন বলেন, নির্বাচনের আগে ভুয়ো গল্প বাঁধছে বিজেপি। আমরা কোনও বাচ্চার গায়ে হাত তুলিনি। ওঁরা আমাদের নামে কুৎসা রটাচ্ছে। মানুষই এর জবাব দেবে।

Back to top button