টাইমলাইনভারত

কানপুর এনকাউন্টার মামলায় বড়সড় সফলতা পেলো যোগীর পুলিশ, এনকাউন্টারে নিকেশ হল বিকাশ দুবের ঘনিষ্ঠ

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ উত্তর প্রদেশের (Uttar Pradesh) কানপুর (Kanpur) জেলার বিকরু গ্রামে আট পুলিশ কর্মীর হত্যার (kanpur encounter) ছয়দিন পর ঘটনার মুখ্য অভিযুক্ত বিকাশ দুবের (Vikas Dubey) ঘনিষ্ঠ শ্যামু বাজপেয়ীকে বুধবার সকালে হামীরপুর জেলায় পুলিশের স্পেশ্যাল টাস্ক ফোর্স এনকাউন্টারে নিকেশ করে।

কানপুর এনকাউন্টারের পর থেকে পলাতক বিকাশ দুবের মামলায় পুলিশের এটি বড়সড় সফলতা। পুলিশ কানপুরের চৌবেপুর এনকাউন্টারের সময় বিকাশ দুবের সঙ্গী শ্যামু বাজপেয়ীকে গ্রেফতার করেছিল। পুলিশ তাঁকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করেছিল। বিকাশ দুবে পালানোর পর থেকে এটি পাঁচ নম্বর এনকাউন্টার। শ্যামুর মাথার দাম ২৫ হাজার টাকা ঘোষণা করেছিল পুলিশ।

অমর দুবে

বিকাস দুবের সঙ্গী অমর দুবে হামীরপুরের মৌহদা কোতওয়ালি এলাকায় পুলিশের এনকাউন্টারে খতম হয়। জেলার পুলিশ তৎকাল অ্যাকশন নিয়ে অমরকে খতম করেছিল। এই এনকাউন্টারে থানা ইনচার্জ মনোজ কুমার আহত হয়েছিলেন।

অমর দুবের উপরেও ২৫ হাজার টাকার পুরস্কার ঘোষণা করেছিল পুলিশ। বিকাশ দুবের এই সঙ্গী গত সপ্তাহে কানপুরের চৌবেপুর থানা এলাকার বিকরু গ্রামে আট পুলিশকর্মীর হত্যার মামলায় জড়িত ছিল। এক পুলিশ আধিকারিক জানান, এই নরকিয় ঘটনার মুখ্য অভিযুক্ত আড়াই লক্ষের ইনামি গ্যাংস্টার বিকাশ দুবে এখনো পলাতক। পুলিশের টিম তাঁকে হন্যে হয়ে খুঁজছে।

এর আগে মঙ্গলবার বিকাশ দুবে পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছিল। একটি গেস্ট হাউসে বিকাশ আর তাঁর সঙ্গীদের লুকিয়ে থাকার খবর পেয়েছিল পুলিশ। ক্রাইম ব্রাঞ্চের টিম ওই গেস্ট হাউসের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখছে। আর ওই ফুটেজে বিকাশ দুবের মতই দেখতে এক ব্যাক্তিকে দেখা গেছে। যদিও অটাই বিকাশ দুবে কি না, সেটা এখনো জানতে পারেনি।

 

Related Articles

Back to top button