আন্তর্জাতিকটাইমলাইন

চীনের সীমান্তে ঢুকে কড়া হুঁশিয়ারি আমেরিকার, পাঠানো হলো বোমা বর্ষণকারী বিমান

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ আমেরিকায় (America) যতই রাজনৈতিক সংকট চলুক না কেন, এই পরিস্থিতিতেও তারা চীনের (China) বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে পিছু পা হচ্ছে না। এই পরিস্থিতির মধ্যেও তারা চীনকে শিক্ষা দিতে একের পর এক কড়া পদক্ষেপ নিয়েই চলেছে। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, চীনকে আকাশ পথে হুশিয়ারি দিতে চীনের এয়ার ডিফেন্স আইডেন্টিফিকেশন জোনে দুটি দূরপাল্লার শক্তিশালী বিমান পাঠিয়েছে আমেরিকা।

চীনের সীমায় প্রবেশ করে হুঁশিয়ারি দিল মার্কিন বিমান
স্বাভাবিক পরিস্থিতি হোক বা কোন রাজনৈতিক সংকটজনক সমস্যা, যে কোন পরিস্থিতিতেই চীনকে মাত দেওয়ার জন্য প্রস্তুত আমেরিকা- একথা আবারও প্রমাণ করে দিল সুপার পাওয়ার। এদিকে এবার এই সময় চীনা সেনাদের নৈবাহিনীর বিশাল মহড়া চলছিল। তা সত্ত্বেও আমেরিকা যে কোন সময়েই চীনকে আক্রমণ করার ক্ষমতা রাখে, তা বুঝিয়ে দিল জিনপিং-এর দেশকে।

চীনকে হুঁশিয়ারি দিতেই এই বিমান প্রেরণ বলে ধারণা
মঙ্গলবার সকালে পাইলট মনিটর এয়ারক্রাফট স্পট পরিস্কার ভাবেই জানিয়ে দেয়, যে USA FB-1 বিমান চীনের ADIZ-এ প্রবেশ করে কিছুক্ষণ পরই ফিরে আসে। সাধারণত, গুপ্তচর মিশনের ক্ষেত্রে এই ধরণের ক্ষমতা সম্পন্ন বিমান পাঠানো হয় না। তবে ধারণা করা হচ্ছে, চীনকে হুঁশিয়ারি দেওয়ার জন্য আমেরিকা এই কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে। চীনকে হুঁশিয়ারি দিতে চীনের ক্ষেত্রে মার্কিন বিমানের প্রবেশের প্রমাণ স্বরূপ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে যে, মার্কিন বিমানের শেষ অবস্থান ছিল পূর্ব চীন সাগরের আকাশসীমা।

সমুদ্রে চলছে চীন বিরোধী নৌবাহিনীর মহড়া
অন্যদিকে আরব সাগরের মালাবরে যৌথ মহড়ার দ্বিতীয় পর্ব শুরু হয়েছে ১৭ ই নভেম্বর এবং চলবে ২০ শে নভেম্বর পর্যন্ত। এই মহড়ায় ভারত এবং আমেরিকার বিমানবাহিনী আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হবে। সেইসঙ্গে এই যুদ্ধাভ্যাসে অংশ নেবে আমেরিকার সবচেয়ে মারাত্মক বিমান বাহক ইউএসএস নিমিতজ, ভারতীয় নৌবাহিনীর বিমানবাহী আইএনএস বিক্রমাদিত্যও। এই মহড়ায় জাপান এবং অস্ট্রেলিয়াও অংশ নিয়েছে।

Back to top button