টাইমলাইনভারত

ব্যস্ত রাস্তার মাঝে আকাশ থেকে নামল বায়ুসেনার হেলিকপ্টার চিতা, অল্পের জন্য বাঁচল দুর্ঘটনার হাত থেকে

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ব্যস্ত রাস্তায় হঠাৎ আকাশ থেকে নেমে পড়ল চিতা (Cheeta helicopter), বায়ুসেনার (Indian Air Force) এক শক্তিশালী হেলিকপ্টার। ফ্রান্সের উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে নির্মাণ করা ভারতীয় বায়ুসেনার এই শক্তিশালী হেলিকপ্টার যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে নেমে পড়ল হরিয়ানার ইস্টার্ন পেরিফেরাল এক্সপ্রেসওয়েতে (astern Peripheral Expressway of Haryana)। রক্ষা পেলেন হেলিকপ্টার মধ্যস্থ ৪ বায়ুসেনা আধিকারীক এবং পাইলট।

আকাশ পথে চলতে গিয়ে যান্ত্রিক গোলযোগ দেখা দেয় চিতা হেলিকপ্টারে। হেলিপ্যাড পর্যন্ত পৌঁছানোর তাই কোন ঝুঁকি নিলেন না পাইলট। অগত্যা তাই দিনের বেলা ব্যস্ত রাস্তার মাঝেই নামাতে হল হেলিকপ্টারকে।

ঘটনার বিবরণ
লকডাউনের মধ্যে অন্যান্য দিনের মতই যানবাহন চলছিল হরিয়ানার ইস্টার্ন পেরিফেরাল এক্সপ্রেসওয়েতে। রাস্তায় হাঁটতে হাঁটতে এক ব্যক্তি দেখতে পেলেন আকাশ থেকে নেমে আসছে একটি হেলিকপ্টার। দেখে এগিয়েও যান তিনি। নামতে সাহায্য করেন পাইলটকে। ঠিক রাস্তার মাঝ বরাবর নামতে সক্ষম হয় হেলকপ্টারটি।

রাস্তায় নামে বায়ুসেনার চিতা
আকাশ পথে চলতে চলতে হঠাৎ কিছু যান্ত্রীক গোলযোগের আঁচ করতে পারেন পাইলট। তাই দেরী না করেই তৎক্ষণাৎ ৪ বায়ুসেনা আধিকারীককে নিয়ে ব্যস্ত রাস্তার মাঝেই নামার সিদ্ধান্ত নেন। সেই মত নেমে পড়লেন হরিয়ানার ইস্টার্ন পেরিফেরাল এক্সপ্রেসওয়েতে। রাস্তায় হেলকপ্টার নামার কথা শুনেই দুদিক থেকে যান চলাচল বন্ধ রাখা হয় কিছুক্ষণ। ঘটনাস্থলে বায়ুসেনা ইঞ্জিনিয়াররা পৌঁছে মাত্র ১ ঘণ্টার মধ্যেই হেলকপ্টারটিকে সারিয়ে তোলেন। ফের নিজের গন্তব্যে উড়তে শুরু করে চিতা।

হেলিকপ্টার চিতা
ঘণ্টায় ১২১ কিমি গতি সম্পন্ন ভারতীয় বায়ুসেনার এই হেলিকপ্টার চিতা মাত্র ৪ মিনিটেই ১ কিমি উপরে উড়তে পারে। ফ্রান্সের টেকনোলজি ব্যবহার করে এই হেলিকপ্টার নির্মাণ করা হয়েছে। যুদ্ধ ক্ষেত্রেই এই উড়ান ব্যবহার করা হয়। তবে বর্তমানে এই সমস্ত শক্তিশালী হেলিকপ্টারের যদি যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে আচমকাই নামার প্রয়োজন হয়, সেই কারণে দেশের বিভিন্ন এক্সপ্রেসওয়েকে সেভাবেই  তৈরি করা হচ্ছে।

Back to top button