টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

টেস্ট ক্রিকেটে অনন্য নজির গড়লেন অ্যান্ডারসন, পেছনে ফেললেন সচিন ও দ্রাবিড়কে

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: বয়স যত বাড়ছে ততোই যেন ধারালো হয়ে উঠছেন ইংরেজ পেসার জেমস অ্যান্ডারসন। আরও একটা বিশেষ নজির তৈরি করলেন তারকা পেসার। কিউয়িদের বিরুদ্ধে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচের চতুর্থ দিনে নিউজিল্যান্ডের টম ল‍্যাথাম কে আউট করা মাত্র তিনি একটি এই নতুন নজির গড়ে ফেলেছেন তিনি। ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথম পেসার হিসেবে ৬৫০ উইকেটের মালিক হলেন তিনি। অবশ্য এখানেই থেমে থাকছে না ৩৯ বছর বয়সী ফাস্ট বোলারের নজিরের সংখ্যা।

অভিজ্ঞ ইংরেজ ফাস্ট বোলার এই টেস্ট ম্যাচ খেলতে নামার সাথে সাথেই পেছনে ফেলে দিয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেটের কিংবদন্তি সচিন টেন্ডুলকার এবং রাহুল দ্রাবিড়। ৩০ বছর বয়স অতিক্রম করার পর সচিন এবং দ্রাবিড় দুজনেই নিজেদের কেরিয়ারে ৯৫ টি করে টেস্ট খেলেছেন। কিন্তু এবার তাদের ম্যাচ সংখ্যা ছাড়িয়ে গেলেন জেমস অ্যান্ডারসন।

৩০ বছর বয়সে অতিক্রম করার পর বিশ্বের মাত্র দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে ১০০ টি টেস্ট খেলার নজির ছুঁলেন অ্যান্ডারসন। তারকা ব্রিটিশ ফাস্ট বোলার নটিংহ্যামে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে মাঠে নামা মাত্র এই অনন্য নজির ছুঁয়েছেন। তার আগে শুধুমাত্র রয়েছেন তারই স্বদেশীয় উইকেট-রক্ষক অ্যালেক্স স্টুয়ার্ট, যিনি ৩০ পেরোনোর পর ১০৭ টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছিলেন। ভবিষ্যতে অ্যান্ডারসন তার রেকর্ড ভেঙেও দিতে পারেন।

দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ৮ ওভার বল করে ১৮ রান দিয়ে আপাতত একটি উইকেট পেয়েছেন অ্যান্ডারসন। নিউজিল্যান্ড প্রথম ইনিংসে ৫৫৩ রান করার পর ইংল্যান্ড তাদের প্রথম ইনিংসে ৫৩৯ রান করে। আপাতত নিউজিল্যান্ডের স্কোর দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ উইকেট হারিয়ে ২২৪ হাতে রয়েছে আরও তিনটি উইকেট। কিউয়িদের হাতে লিড রয়েছে ২৩৮ রানের। ড্যারেল মিচেলরা চাইবেন সেই লিড ৩০০-এর ওপরে নিয়ে যেতে। আর অ্যান্ডারসন সহ সকল ইংল্যান্ড বোলাররা চেষ্টা করবেন যত তাড়াতাড়ি সম্ভব নিউজিল্যান্ডকে অল আউট করার।

Related Articles

Back to top button