টাইমলাইনবিনোদন

সপরিবারে করোনা আক্রান্ত, এর মাঝেই স্ত্রীকে হারালেন পরিচালক অনিন্দ‍্য সরকার

বাংলাহান্ট ডেস্ক: টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে উত্তরোত্তর বেড়েই চলেছে করোনা (corona) সংক্রমণ। বেশ কয়েকজন টলি ও টেলি তারকা আক্রান্ত হয়েছেন করোনায়। অনেকে সুস্থও হয়ে গিয়েছেন। কিন্তু এবার খারাপ খবর এল পরিচালক তথা অভিনেতা অনিন্দ‍্য সরকারের (anindo sarkar) পরিবারে। মারণ ভাইরাসের ছোবলে প্রয়াত হয়েছেন পরিচালকের স্ত্রী প্রীতি সরকার।

কিছুদিন আগেই পরিচালক জানিয়েছিলেন সপরিবারে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন তাঁরা। প্রথমে মেয়ে, তারপর স্ত্রী আর এবার করোনা থাবা বসিয়েছে তাঁর শরীরেও। স্ত্রীর জ্বর একটু বেশিই তবে তিনি ভয় পাচ্ছেন না বলেও জানিয়েছিলেন পরিচালক।

ছবি-ফেসবুক

কিন্তু এর মধ‍্যেই এল দুসংবাদ। সোশ‍্যাল মিডিয়ায় অভিনেত্রী তথা বিজেপির তারকা সদস‍্য রূপা ভট্টাচার্য জানান এই খবর। শোকপ্রকাশ করে তিনি লেখেন, ‘অনিন্দ‍্য সরকার দা তোমাকে ফোন করার সাহস হল না। ক্ষমা করো। প্রীতি বৌদি যেখানেই থাক ভাল থাক।’ অভিনেত্রীর পোস্ট দেখে হতবাক ইন্ডাস্ট্রির কলাকুশলীরা। কেউই বিশ্বাস করতে পারছেন না খবরটা। পরিচালক ও তাঁর পরিবারকে সান্ত্বনা দিয়েছেন সকলে।

গত ৭ মে করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর জানিয়ে ফেসবুকে পোস্ট করেছিলেন অনিন্দ‍্য সরকার। তিনি লেখেন, ‘নিজের বাড়িতে তো পরনারী আনা সম্ভব নয়..সাহসের অভাবে সেখানে আমিও সচ্চরিত্র..এদিকে আমার পরিবারের দুই মহিলা এখন “করোনা-রী”..মেয়েই প্রথম, গত সাতদিন..তারপর আমার বৌ, গত চারদিন’

তিনি আরো লেখেন, ‘দুই করোনারীর মাঝে আমার তো “থ্রমবসিস” হবার অবস্থা..ঘরের সমস্ত কাজ..দুই করোনারীর গরম জল..খাবার..ওষুধ.ভ্যাপৌর,গার্গল,স্যানিটাইজেশন,টেম্পারেচার চার্ট..অক্সিজেন লেভেল দেখা..পালস রেট চেক করা এসব তো আছেন..এর সাথে ঘরদোর মোটামুটি পরিস্কার করা,ময়লা ফেলা,ডাব কেটে দেওয়া,লেবু দেওয়া, আদা লবঙ্গর চা করে দেওয়া হোম ডেলিভারীর খাবার নেওয়া,ডিসপোসেবল এর ব্যবস্থা সবই করতে হচ্ছিল..এই এগারোদিন ধরে মনেই হচ্ছিল সে নিশ্চই আমাকে রেহাই দেবে না..দিলোও না..পরীক্ষা করালাম তার ভালবাসার..বলল যো বিবি আউর পরিবারসে করে পেয়ার ও করোনা সে ক‍্যায়সে করে ইনকার’।

বাংলা সিনে ইন্ডাস্ট্রিতে অত‍্যন্ত পরিচিত মুখ অনিন্দ‍্য সরকার। বেশ কয়েকটি ছবি ও সিরিয়ালের পরিচালনা করেছিলেন তিনি। বিদ্রোহিনী, ছোট মেমসাহেব, তৃষ্ণা, রামকৃষ্ণ‍র মতো ছবি ও সিরিয়ালের পরিচালক তিনি।

Related Articles

Back to top button