fbpx
টাইমলাইনবিনোদন

ভেঙেছে বাথরুমের জানলা, ফলস সিলিং, আমফানের দাপটে ক্ষতিগ্রস্ত অঙ্কুশের বিলাসবহুল আবাসন

বাংলাহান্ট ডেস্ক: করোনা আতঙ্কে আগে থেকেই নাজেহাল ছিল রাজ‍্যবাসী। তার দোসর হল ভয়াবহ ঘূর্ণীঝড় আমফান (amphan)। বুধবার বিকেল থেকে আমফানের তাণ্ডব দেখেছে পশ্চিমবঙ্গ বাসী। ক্ষতির পরিমাণ অকল্পনীয়। কাঁচা বাড়িগুলির অবস্থা কহতব‍্য নয়। হাজার হাজার মানুষ ঘরছাড়া হয়েছে। উপড়ে গিয়েছে প্রচুর গাছ। এখনও বহু জায়গায় বিদ‍্যুৎ ও জল সরবরাহ ব‍্যবস্থা স্বাভাবিক হয়নি।
খাস কলকাতাতেও আমফান তার দাপট দেখিয়েছে পুরোদমে। রেহাই পায়নি বিলাসবহুল বহুতলা আবাসনও। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে টলিউড অভিনেতা অঙ্কুশ হাজরার (ankush hazra) বাড়ি। ঝড়ের দাপটে ঘরের মধ‍্যে ঢুকে এসেছে জল। ভেঙেছে বাথরুমের জানলা, ফলস সিলিং।


অবস্থার ছবি তুলে নিজের সোশ‍্যাল মিডিয়া হ‍্যান্ডেলে শেয়ার করেছেন অঙ্কুশ। ক‍্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘সাইক্লোন না ভূমিকম্প? আমাদের বাথরুমের অবস্থা..জানলা ভেঙে গিয়েছে, ফলস সিলিং খসে পড়ছে। ঘরের মেঝেতে জল ভর্তি। আমাদের মতো লোকেরা তাও এই পরিস্থিতি সামাল দিতে পারবে। কিন্তু দরিদ্র ও অসহায় মানুষদের কি হবে.. আমরা সবাই তাদের একটু পাশে দাঁড়াই।’

অঙ্কুশের পোস্টে মন্তব‍্য করেছেন অনেকেই। সকলেই এই অবস্থা দেখে স্তম্ভিত। জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিকের অভিনেত্রী স্বস্তিকা দত্ত লিখেছেন, আমফানের ভয়ঙ্কর স্মৃতি এখনও ভুলতে পারছেন না তিনি। এর সঙ্গে ঝড়ের সময়কার একটি ভিডিও শেয়ার করেও সবাইকে সাবধানে থাকার বার্তা দেন অঙ্কুশ।

প্রসঙ্গত, অঙ্কুশের বাড়িতেই গত দুমাস যাবত অর্থাৎ লকডাউনের শুরুর সময় থেকে আটকে রয়েছেন ঐন্দ্রিলা। লকডাউন ঘোষনার দিন মায়ের সঙ্গে এ বাড়িতেই ছিলেন তিনি। তারপর ফেরার কথা বললেও আটকে দিয়েছেন অঙ্কুশের বাবা মা। বুধবার আমফানের সময়ও একসঙ্গেই ছিলেন অঙ্কুশ ও ঐন্দ্রিলা।

Back to top button
Close
Close