টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

অনুব্রতর দুয়ারে চিকিৎসক নিয়ে কটাক্ষ অনুপমের, বললেন ‘সাধারণ মানুষের বাড়িতে যাবেন তো”

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বঙ্গ রাজনীতিতে বর্তমানে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন বীরভূমের (Birbhum) তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল (Anubrata Mondal)। প্রতিদিনই তৃণমূল নেতাকে নিয়ে একের পর এক চাঞ্চল্যকর মোড় উঠে আসছে। গতকাল সিবিআই (CBI) তলব এড়িয়ে যান তিনি আর এর মাঝে আগামীকাল পুনরায় একবার নিজাম প্যালেসে হাজিরা দেওয়ার জন্য অনুব্রতকে সমন পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। এদিন আবার অনুব্রতর বাড়িতে বোলপুর হাসপাতালের চিকিৎসকদের পৌঁছে যাওয়াকে কেন্দ্র করে সৃষ্টি হল রাজনৈতিক বিতর্ক, যার পরে তৃণমূল নেতার দিকে কটাক্ষ ছুড়ে দিলেন বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা (Anupam Hazra)।

উল্লেখ্য, বিগত বেশ কয়েক মাস ধরে একাধিক শারীরিক অসুস্থতায় জেরবার বীরভূমের জেলা সভাপতি। সিবিআই তলব মাঝে সম্প্রতি এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি হন অনুব্রত। তিন সপ্তাহের কাছাকাছি সময় হাসপাতালে ভর্তি থাকার পর অবশেষে ছাড়া পান তিনি। গতকাল কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার সমন মাঝে কলকাতাতে আসলেও এসএসকেএম হাসপাতালে শারীরিক পরীক্ষা করে পুনরায় একবার ফিরে যান বোলপুরে। এর মাঝেই এদিন তাঁর বাড়িতে পৌঁছে যায় বোলপুর হাসপাতালের চার চিকিৎসকের একটি টিম, যার পরেই এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তৃণমূল নেতার দিকে কটাক্ষ ছুড়ে দিয়েছেন অনুপম হাজরা।

একটি সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে তিনি লেখেন, “এতদিন জানতাম, সরকারি চিকিৎসা পেতে গেলে রোগীকে সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা করতে যেতে হয়। কিন্তু সম্পূর্ণরূপে সুস্থ বীরভূমের প্রভাবশালী তৃণমূল নেতার ক্ষেত্রে ঠিক উল্টোটা ঘটেছে। বোলপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ডাক্তাররা হাসপাতাল ছেড়ে তাঁর বাড়িতে গিয়ে পরিষেবা দিয়েছেন তাঁকে CBI এর হাত থেকে বাঁচানোর জন্য।” এরপরেই বিজেপি নেতা প্রশ্ন ছুড়ে দেন, “এই ডাক্তাররা আর পাঁচটা অসুস্থ মানুষের পরিষেবার জন্য বাড়ি বাড়ি এসে চিকিৎসা করে যাবেন, এটা কি আশা রাখতে পারি?”

স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে যে, হঠাৎ বোলপুর হাসপাতালে চিকিৎসকরা কি কারণে অনুব্রত মণ্ডলের বাড়িতে পৌঁছে গেলেন? যদিও এদিন হাসপাতাল সুপার জানান, “অনুব্রত মণ্ডলের বাড়িতে চিকিৎসক পাঠানোর জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অনুরোধ আসে আর সেই কারণে তাঁর বাড়িতে পৌঁছে যায় চিকিৎসকের একটি দল। ওনার শারীরিক একাধিক সমস্যা রয়েছে, বর্তমানে বেশ কয়েকটি ওষুধ দেওয়া হয়েছে।” একই সঙ্গে এই মুহূর্তে কলকাতায় না যাওয়াই শ্রেয় বলেই মন্তব্য প্রকাশ করেন চিকিৎসকরা।

প্রসঙ্গত, আগামীকাল নিজাম প্যালেসে সিবিআই তলবের আগের দিন এ সকল কাণ্ডকে ঘিরে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক বিতর্ক। সমগ্র ঘটনা প্রসঙ্গে এদিন অনুপম হাজরা বলেন, “সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের চিকিৎসকরা এদিন অনুব্রত মণ্ডলের বাড়ি পৌছে গিয়েছেন। যেখানে সাধারণ মানুষকে হাসপাতালে যেতে হয়, সেখানে একজন সুস্থ মানুষের বাড়িতে এভাবে কেন পৌঁছে গিয়েছেন তারা? পরবর্তীতে সাধারণ মানুষের ক্ষেত্রেও এরম পরিষেবা পাওয়া যাবে তো?”

অপরদিকে, বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য জানান, “নির্বাচিত প্রতিনিধি না হওয়া সত্ত্বেও কি কারণে অনুব্রত মণ্ডলের বাড়িতে চিকিৎসকের দল পৌঁছে গেলো?আসলে অনুব্রতর বিরুদ্ধে যে সকল অভিযোগ উঠেছে, তা তাঁর একার পক্ষে করা কখনোই সম্ভব নয়। সব কিছুই একটি চক্রান্ত।”

Related Articles