টাইমলাইনবিনোদনরাজনীতি

ভারতের বিষয়ে না জেনেই ‘নাক গলানো’! রিহানার বিউটি ব্র‍্যান্ড বয়কটের ডাক দিলেন অর্পিতা চট্টোপাধ‍্যায়

বাংলাহান্ট ডেস্ক: ভারতে কৃষক আন্দোলন (farmers protest) নিয়ে কার্যত দু ভাগে বিভক্ত হয়ে গিয়েছে বিনোদন জগতের কলাকুশলীরা। একদল কেন্দ্রীয় সরকারের হয়ে সুর চড়িয়েছেন আবার অপর সক্ষ কৃষকদের পক্ষে সরব হয়েছেন। আন্তর্জাতিক মহলেও লেগেছে ভারতের কৃষক আন্দোলনের আঁচ। কৃষকদের হয়ে মুখ খুলেছেন রিহানা (rihanna), গ্রেটা থুনবার্গরা।

এবার এই আন্তর্জাতিক খ‍্যাতি সম্পন্ন তারকাদের বিরুদ্ধেই তোপ দাগলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ‍্যায়ের স্ত্রী তথা অভিনেত্রী অর্পিতা চট্টোপাধ‍্যায় (arpita chatterjee)। ভারতের কৃষক আন্দোলন নিয়ে ‘নাক গলানোয়’ রিহানার ‘ফেন্টি বিউটি প্রোডাক্টস’ বয়কটের দাবি জানালেন অর্পিতা।


সোশ‍্যাল মিডিয়ায় অভিনেত্রী লিখেছেন, ‘ফেন্টি বিউটি প্রোডাক্টস বয়কটের সিদ্ধান্ত নিলাম। রিহানা ও গ্রেটা থুনবার্গের কোনো ধারনাই নেই ভারতে কি হচ্ছে এবং কেন হচ্ছে। তাঁদের নিজেদের দেশে কি হচ্ছে তা সম্পর্কেও তাঁদের কোনো ধারনা আছে কি?’


ভারতে দীর্ঘ কয়েক মাস যাবত চলতে থাকা কৃষক আন্দোলন নিয়ে সম্প্রতি সরব হন মার্কিন পপস্টার রিহানা ও পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ। তারপরেই আন্তর্জাতিক মহলে ভারতের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে শোরগোল শুরু হয়। রিহানা, গ্রেটার সঙ্গে যোগ দেন অস্কার জয়ী অভিনেত্রী সুসান স‍্যারান্ডন, আমান্ডা কার্নি, প্রাক্তন পর্নস্টার মিয়া খলিফাও।

দিল্লি বর্ডারে কৃষক আন্দোলনের স্থানে ইন্টারনেট বন্ধ করে দেওয়া নিয়ে টুইট করেন রিহানা। এই সংক্রান্ত একটি খবরের আর্টিকেল রিটুইট করে তিনি লেখেন, ‘এই বিষয়ে আমরা কথা বলছি না কেন?’ রিহানার এই টুইট ভাইরাল হয়ে যায় মুহূর্তের মধ‍্যে। টুইটারেও ট্রেন্ড করতে থাকেন তিনি।

টুইট করে কৃষকদের সমর্থনের কথা জানিয়েছেন প্রাক্তন পর্নস্টার মিয়া খলিফাও। ভারতে কৃষক আন্দোলনের একটি ছবি টুইট করেন মিয়া। প্ল‍্যাকার্ড হাতে আন্দোলনকারী এক মহিলার ছবি টুইট করে তিনি লেখেন, ‘মানবাধিকার লঙ্ঘন করে এটা কি চলছে?! নয়া দিল্লির আশেপাশে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে?!’

তবে এই তারকাদের পরোক্ষে সমালোচনা করে সরব হয়েছে বিদেশমন্ত্রক। সংবেদনশীল বিষয় নিয়ে না জেনেই মন্তব‍্য করা উচিত নয়, এমনি বলা হয়েছে টুইটে। পরিবেশকর্মী গ্রেটার বিরুদ্ধে FIR ও দায়ের করে দিল্লি পুলিস।

এই কাজের জন‍্য তুমুল ট্রোল হতেই দিল্লি পুলিস সাফাই দেয় FIR এ কারোর নাম নেওয়া হয়নি। দিল্লির রাস্তায় গ্রেটা, মিয়াদের কুশপুতুলও পোড়ানো হয়। তারপরেও কৃষকদের সমর্থন করা ছাড়েননি গ্রেটা থুনবার্গ।

Back to top button