টাইমলাইনবিনোদন

নস্টালজিয়া উসকে আবারো শোনা যাবে আশা-কিশোরের কণ্ঠ, ফের বাংলা ছবিতে গান গাইলেন আশা ভোঁসলে

বাংলাহান্ট ডেস্ক: ভারতীয় সঙ্গীত জগতের উজ্জ্বলতম নক্ষত্রদের মধ্যে একজন আশা ভোঁসলে (Asha Bhosle)। সঙ্গীত জ্ঞানী পরিবারের মেয়ে সুদীর্ঘ কেরিয়ারে অগুন্তি গান গেয়েছেন। ২০ টি ভাষায় গান গেয়েছেন তিনি। তার মধ্যে রয়েছে বাংলা গানও (Bengali Song)। একাধিক বাংলা ছবিতে (Bengali Film) গান গেয়েছেন আশা।

তবে শেষবার সেই আটের দশকে বাংলা ছবিতে গান গেয়েছিলেন কিংবদন্তি আশা ভোঁসলে। ‘গুরু’ ছবিতে বাপ্পি লাহিড়ীর সুরে শেষবার কণ্ঠ দিয়েছিলেন তিনি। অনেক গানের মধ্যে ‘কলঙ্কিনী কঙ্কাবতী’ ছবির ‘আধো আলো ছায়াতে, কিছু ভালোবাসাতে’ গানটি বিশেষ ভাবে জনপ্রিয়। কিশোর কুমার ও আশা ভোঁসলের গাওয়া এই গান এত বছর পরেও একই রকম হিট।


তবে বহুদিন হল বয়সজনিত কারণের জন্য আর ছবিতে গান গাইতে শোনা যায় না আশা ভোঁসলেকে। তবে তাঁর ভক্তদের আর অপেক্ষা করার প্রয়োজন নেই। কারণ খুব শীঘ্রই বাংলার দর্শকদের জন্য নতুন গান নিয়ে ফিরছেন কিংবদন্তি আশা ভোঁসলে। তবে তিনি একা নন। সঙ্গে শোনা যাবে আরেক কিংবদন্তি কিশোর কুমারের কণ্ঠও।

হ্যাঁ, ঠিকই পড়েছেন। নস্টালজিয়া উসকে ফের একবার কিশোর-আশা ম্যাজিক ফিরতে চলেছে বাংলা ছবিতে। ছবির নাম ‘হার্ট বিট’ (Heart Beat)। পরিচালক গোবিন্দ শীলের এই ছবিতে দুটি গান গেয়েছেন আশা ভোঁসলে। তার মধ্যে একটি গানে শোনা যাবে কিশোর কুমারের কণ্ঠও। তবে সেটা থাকবে সংলাপের আকারে।


ছবিতে সঙ্গীত পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন মনোজিৎ গোস্বামী। তিনি জানান, বছর ৮৮-র আশা ভোঁসলে বিগত কয়েক বছর ধরেই আর গান গাইছেন না। করোনা মহামারী ও দিদি লতা মঙ্গেশকরের মৃত্যুতেও শোকস্তব্ধ তিনি। তবে মনোজিৎ গোস্বামীকে ‘না’ বলতে পারেননি গায়িকা। আসলে ২০১২ সাল থেকে আশা ভোঁসলের সঙ্গে পরিচয় সঙ্গীত পরিচালকের। সেই থেকেই সন্তান স্নেহে দেখেন তিনি মনোজিৎ বাবুকে।


তাই সঙ্গীত পরিচালকের আবদার ফেলতে পারেননি কিংবদন্তি গায়িকা। ছবির দুটি গানই মনোজিতের লেখা। প্রথম গান ‘তুই কি আমাকে কাছে চাস’। আর দ্বিতীয়টি, ‘ভাবিনি কখনও এমন হবে’। দুটি গানই গাইবেন আশা ভোঁসলে। প্রথম গানটিতে আশার সঙ্গে কণ্ঠ দিয়েছেন গায়ক শান। আর দ্বিতীয় গানটিতেই আশাজির সঙ্গে শোনা যাবে কিশোর কুমারের কণ্ঠে সংলাপ।


কিন্তু স্বর্গীয় সঙ্গীত কিশোর কুমারের কণ্ঠ গানে যোগ হল কীভাবে? সঙ্গীত পরিচালক মনোজিৎ বাবু জানান, কিশোর কুমারের কিছু কথার রেকর্ডিং আগে থেকেই তাঁর কাছে ছিল। পরে অবশ্য এই অংশটা ব্যবহারের জন্য কিশোর কুমার পুত্র অমিত কুমারের থেকে লিখিত অনুমতি নিয়েছেন তিনি। উল্লেখ্য, ‘হার্ট বিট’ ছবিটি কবে মুক্তি পাবে তা এখনো জানা না গেলেও বিস্তারিত তথ্য খুব শীঘ্রই জানা যাবে।

Related Articles

Back to top button