রাশিফলটাইমলাইনলাইফস্টাইল

যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও সঠিক সম্মান পাচ্ছেন না? মেনে চলুন ৫ টি নিয়ম, পাল্টে যাবে ভাগ্য

লিখনে- জ্যোতিষী দেবকন্যা সুভাষিনী

জীবনে চলার পথে আমরা অনেক সময় জ্যোতিষশাস্ত্রের (astrology news) সাহায্য নিয়ে থাকি। জীবনে ওঠা পড়া সকল মানুষেরই থাকে। কখনই জীবনে চলার পথে হোঁচট খেলেই আমরা আবারও জীবনের সুখের দিনের খোঁজে কোন জ্যোতিষীর দরজায় গিয়ে কড়া নাড়ি। মানুষের জীবনের বিভিন্ন সমস্যার মধ্যে আজকে একটি বিষয় নিয়ে আলোচনা করব। খুব সহজেই কাউকে আকর্ষণ করার সহজ কিছু টোটকা জেনে নিন।

আপনি অনেক সুন্দর হয়েও আপনার দিকে কাউকেই আকর্ষিত করতে পারেন না। এমন নয় যে শুধু প্রেমিক প্রেমিকার ক্ষেত্রে, দেখা গেলো স্কুলে, কলেজে বা কাজের জায়গায় এমন কি পরিবারেও আপনার দিকে আপনি কাউকে আকৃষ্ট করতে পারেন না। ভালোবাসা পেয়ে যায় কিছু না করেই অন্য কেউ, ভাই বোনদের মধ্যে বা শাশুড়ি বৌ মা, কিংবা জামাই কিছুতেই মন জিততে পারছেন না- কিন্তু অন্তর থেকে আপনি সবটুকু করেন, তাদের ভালো ও বাসেন।

nlnsffs Bangla Hunt Bengali News

ক্লাসে ও স্টুডেন্টদের ক্ষেত্রে এরকমটা হয়ে থাকে। পড়াশোনা ভালো করার পরেও টিচার দের মন পাওয়া যায় না এতো টুকুও। কর্ম ক্ষেত্রে বসের চোখে ফাঁকিবাজদের জায়গা হয়ে গেলেও, আপনার জায়গা হয় না। বস সবসময়েই আপনার পিছনে পরে থাকে বকা ঝকা করে দিনরাত, ছুটি চাইলে ছুটি পাওয়া যায় না? অথচ যারা কামাই করে রোজ আসে না উল্টে তাদের ছুটি সবসময়েই মঞ্জুর হয়ে যায়? এসব চোখের সামনে ঘটতে দেখে আপনারা প্রচন্ড হতাশাগ্রস্ত হয়ে যান, কি তাইতো?

আসলেই যারা সবার ওপর নিজের আকর্ষণ বানাতে সক্ষম হচ্ছেন, তারা জন্মগত শুক্র, বুধ, রবি গ্রহের কৃপা নিয়ে জন্মেছেন। অর্থাৎ তাদের জন্মকুন্ডলিতে ঐসকল গ্রহ অবস্থান খুব ভালো ভাবে হয়েছে। তাই তারা কিছু না করেও সবার চোখে প্রিয় হয়ে উঠতে পারছেন। কিন্তু আপনার হয়তো সেই সকল গ্রহদের অবস্থান জন্মকুন্ডলিতে ভালো নয়, তাই আপনারা উজাড় করে সবটুকু করেও সবার চোখের আড়ালে পরে থাকছেন বা অপ্রিয় হয়ে থাকছেন। তাই নিজেকে সবার চোখে প্রিয় করার সেই আকর্ষণ শক্তি বাড়ানোর কিছু টোটকা জেনে নিন।

কিন্তু কাজ গুলি প্রত্যেক কটাই করতে হবে, যেকোনো একটা করলে হবে না এবং সবার আড়ালে করতে হবে কাউকেই বলা যাবে না।

একটি তামার পাত্রে 10 গ্রাম মধু নিন, প্রত্যেক শুক্রবার এবং রবিবার সকাল 6 টা থেকে 9 টার মধ্যে স্নান করে ধোয়া সাদা রঙের বস্ত্র পরে কম্বলের আসনে বসে পূর্বদিকে মুখ করে আপনার রিং ফিঙ্গার ওই তামার পাত্রে রাখা মধুতে ডুবিয়ে সেই ব্যক্তির নাম বলুন তিনবার যে বা যারা আপনার ওপর অসুন্ত্যষ্ট এবং সাথে নিজের নাম বলুন তিনবার। মধুর সম্পর্ক তৈরী হোক বলে মধুর মধ্যে এক চিমটি অষ্টগন্ধ্যা ও একটু কর্পূর গুঁড়ো দিন এবং 6 বার ‘শ্রীইং’ শব্দটি মনে মনে উচ্চারণ করুন। এইভাবে 7 টি শুক্র ও রবিবার করবার পরে সেই মিশ্রণটির ছোটো টিপ কপালে পরে থাকুন স্নানের পরে, অবশ্যই ভালো রেজাল্ট পাবেন।

নিজেকে প্ৰিয় পাত্র করে তোলবার জন্য সাদা ও সবুজ রঙের জামাকাপড় বেশি করে পড়ুন। কালো ও নীল রং avoid করুন। প্রত্যেক বুধবার বিকেল 4 টার সময় 4 টে ঘি-এর লাড্ডু দিয়ে গনেশ দেবকে ভোগ দিন। সাথে দূর্বা দিতে ভুলবেন না। ঘরে উপায় না থাকলে ওই নির্দিষ্ট সময় 4 টে লাড্ডু ও দূর্বা দিয়ে মন্দিরে পুজো দিন। মনে মনে 4 বার এই মন্ত্র টা পড়ুন- ‘ওঁ গণ গনপতৈই নমঃ’ এবং সেই প্রসাদ আশ্রয়হীন ক্ষুধার্ত গরিব 4 টে বাচ্চা কে দান করুন। ভালো রেজাল্ট পাবেন। আর আপনি প্রত্যেক বুধবার কলাপাতায় দুপুরের খাবার খান।

প্রত্যেক দিন সকালে 9 টার আগে সূর্য দেবের পূজা করুন। মনে রাখবেন তামার পাত্রে সাদা তিল, লাল চন্দন, কর্পূর, অষ্টগন্ধ্যা, জবা ফুল দিয়ে অর্ঘ্য প্রদান করুন। অবশ্যই স্নান করে হলুদ বস্ত্র পরে নিজের নাম গোত্র দ্বারা, প্রাথনায় নিজের যশ ভাগ্য সুখ্যাতি কামনা করুন। অবশ্যই সূর্য মন্ত্র দ্বারা-
“ওঁ জবাকুসুম সংঙ্কাশং কাশষ্যপেয়ং মহাদুত্তিম
ধানতারিং সর্ব পাপোঘনং প্রণতহোশমি দিবাকরম”
ওঁ নমঃ ভগবতে শ্রী সূর্যায়ো নমঃ
বা সময় না থাকলে শুধু, “ওঁ হ্রিং হ্রিং সূর্যায়ো নমঃ”

যদি এতো কিছু করার সময় না থাকে তবে একজন সঠিক জোতিষ ব্যক্তিত্বের সাথে যোগাযোগ করুন এবং প্রতিকার নিয়ে সবার মনের মনিকোঠায় নিজের জায়গা করে নিন এবং নিজের প্রতি সকলের আকর্ষণ বৃদ্ধি করুন এবং নিজের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে তুলুন প্রতিকার ধারণের দ্বারা, সকলের অজান্তেই সকলের প্রিয় পাত্র হয়ে উঠুন।

আপনার জীবনের যেকোনো সমস্যার সমাধান করতে যোগাযোগ করুন ১৫ বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন জ্যোতিষী দেবকন্যা সুভাষিনীর সাথে, বুকিং করতে এক্ষুনি
কল করুন – 8100211211 ,
Visit – astrologerdebkanyasuvashini.com
Facebook- Astrologer Debkanya Suvashini

Back to top button