টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

ডোপিং করে ভারতীয় ফুটবলকে কলঙ্কিত করলো এটিকে মোহনবাগান ফুটবলার, লজ্জা পাচ্ছেন মেরিনার্সরা

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক:আইএসএলে অভিযান শুরুর আগেই হোঁচট খেলো এটিকে মোহনবাগান। ডোপিংয়ের দায়ে আগামী ২ বছরের জন্য ফুটবল থেকে নিষিদ্ধ হলেন এটিকে মোহনবাগানের তারকা ফুটবলার আশুতোষ মেহতা। ডোপ টেস্টে পাশ করতে না পারায় আগামী দু বছরের জন্য তাকে নির্বাসিত করেছে ন্যাশনাল অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সি।

আশুতোষ মেহতা নামটা ভারতীয় ফুটবলপ্রেমীদের কাছে খুবই পরিচিত নাম। আই লিগ, আইএসএলে দীর্ঘদিন দাপটের সাথে খেলে চলেছেন। আইজল, মোহনবাগান, এটিকে, এটিকে মোহনবাগান, নর্থইস্টের মতো দলের ডিফেন্সকে ভরসা দিয়েছেন নিজের কেরিয়ারে। ভারতের জার্সিও গায়ে চাপিয়েছেন বেশ কয়েকবার। কিন্তু গত সপ্তাহের আগে নাডার একটি নির্দেশিকায় অ্যান্টি ডোপিং ডিসিপ্লিনারি প্যানেলের তরফে এই নির্বাসনের কথা জানানো হয়েছে। পরীক্ষা করে জানা গিয়েছে যে তারকা ডিফেন্ডারের মূত্রের স্যাম্পলে মরফিন পাওয়া গিয়েছে যা ফুটবলারদের জন্য নিষিদ্ধ।

গত দুই বছর ধরে করোনার ভ্রূকুটির কারণে আইএসএলের আয়োজন হয়েছিল গোয়াতে। দুই মরশুমে বায়ো বাবলের আওতায় ম্যাচ আয়োজিত হয়। গত মরশুমে শুধুমাত্র ফাইনালে ম্যাচে দর্শক প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। সেই ফাইনালে ট্রফি ঘরে তুলেছিল হায়দরাবাদ।

নাডার তরফে ১৬ পাতার নির্দেশিকায় আশুতোষের বিষয়ে বলা হয়েছে, গত বছর ৮ ফেব্রুয়ারি আইএসএলে ম্যাচের আগে আশুতোষের মূত্রের নমুনা নেওয়া হয়। ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির বা ওয়াডার নিয়ম অনুযায়ী যাবতীয় টেস্ট করা হয় এবং তারপর ডিফেন্ডারের মূত্রে মরফিন (মাদক) মিলেছে।

এই সিদ্ধান্তে কতটা ক্ষতি হবে এটিকে মোহনবাগানের? বিশেষজ্ঞরা বলছেন আশুতোষের না থাকা খুব একটা প্রভাব ফেলবে না দলে। কিন্তু এইমুহূর্তে খুব একটা ভালো ছন্দে নেই সবুজ মেরুণ শিবির। ডুরান্ড ও এএফসি কাপের জোনাল সেমিফাইনালে প্রত্যাশিত ফল হয়নি। আর আইএসএলের আগে এই ঘটনা মানসিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে জুয়ান ফের্নান্দো দলকে।

Related Articles