কলকাতাটাইমলাইন

পার্কিং নিয়ে উত্তেজনা, নিউটাউনে অধ্যাপক আঙ্কুর রায়ের উপর হামলা ওপর অধ্যাপক মেহেদি হাসানের

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ গাড়ি পার্কিং করা নিয়ে উত্তপ্ত হয়ে উঠল নিউটাউনের (newtown) AL ব্লকের এক অভিজাত আবাসন। এই আবাসনের নীচে গাড়ি পার্কিং-এর জায়গা নিয়ে ঝামেলায় জড়ান দুই অধ্যাপক। পরিস্থিতি এতোটাই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে যে, এক অধ্যাপকের উপর চড়াও হয় একদল দুষ্কৃতী। আহত হন অধ্যাপক এবং তাঁর স্ত্রী পুত্রও।

নিউটাউনের AL ব্লকের এক অভিজাত আবাসনের বাসিন্দা হলেন সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজের কেমিস্ট্রি বিভাগের হেড অফ দা ডিপার্টমেন্ট অঙ্কুর রায় এবং গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মেহেদি হাসান। বিগত এক বছর ধরে আবাসনের বাসিন্দা ওই দুই অধ্যাপকের মধ্যে পার্কিং এরিয়া নিয়ে একটা সমস্যা চলছে। এমনকি তাদের বিবাদের রেশ হাইকোর্ট অবধিও গড়িয়েছে।

ঘটনার বিবরণে জানা গিয়েছে, আবাসনের নীচে পার্কিং এরিয়াতে গাড়ি রাখা নিয়ে গত ১৭ ই নভেম্বর অঙ্কুর রায় এবং মেহেদি হাসানের মধ্যে ঝামেলা শুরু হয়। গাড়ি পার্ক করে লিফটে করে ঘরে যাওয়ার সময় বেশ কয়েকজন দুষ্কৃতী চড়াও হয় অঙ্কুর রায় এবং তাঁর পরিবারের উপর। জানা গিয়েছে সেই দলে ছিলেন গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মেহেদি হাসান ও তাঁর ভাই।

লোহার পাইপ দিয়ে প্রথমে অঙ্কুর রায়কে মারধর করার পর তাঁর স্ত্রীকেও মারধর করা হয় লোহার রড দিয়েই। এমনকি মারধর করা হয় বছর ১৪- এর ছেলেকেও। ঘটনার জেরে মেহেদি হাসানের নামে নিউটাউন থানায় অভিযোগ দায়ের করেন অঙ্কুর রায়। পুরনো ঝামেলা থেকেই এই হামলা বলে মনে করলেও পুলিশ তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে।

Back to top button