টাইমলাইনভারত

দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত ভাটপাড়ার বিজেপি বিধায়ক পবন সিং, অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচলেন

বাংলা হান্ট ডেস্ক : এত দিন অবধি টার্গেট ছিলেন অর্জুন সিংহ তবে এবার তাঁর পুত্র অর্থা ভাটপাড়ার বিজেপি বিধায়ক পবন সিং কে লক্ষ্য করা হচ্ছে, বৃহস্পতিবার ভর সন্ধ্যায় তাঁকে লক্ষ্য করে দুষ্কৃতীদের বোমা মারার অভিযোগ ওঠে। অভিযোগের তির তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে জগদ্দল থানার পুলিশ। জানা গিয়েছে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা বেলায়, তবু দল থানার কলাবাগান এলাকায় একটি বিজেপির দলীয় কার্যালয় দখল নিতে আসে তৃণমূল কর্মীরা

দলীয় অফিস বাঁচাতে গিয়ে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের মুখে পড়তে হয় বলে অভিযোগ।করা গিয়েছে পবন সিং যখন ঘটনাস্থলে আসেন ঠিক তখন তৃণমূল কর্মীরা তাঁদের দলীয় কার্যালয় সবুজ রং করছিলেন, আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে বচসা হয় তার পর পবন সিং কে লক্ষ্য করে বোমা ছোড়া হয়। যদিও বোমা পবন সিংহের গা ঘেঁসে বেরিয়ে গেছে তাই অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন তিনিই

একটি নর্দমায় এবং অন্যটি হাতে নিই তাই ঘটনার জেরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় গোটা এলাকায়। এই প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে ভাটপাড়ার বিধায়ক পবন সিংহ জানিয়েছেন, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা আমাকে লক্ষ্য করে বোমা মেরেছিল আমি বেঁচে গিয়েছি গায়ে লাগেনি, তবে অন্য কারও ক্ষতি হতে পারত। এই সময় জুট মিলের শিফট শেষ হয়েছে, শ্রমিকরা ঘোষপাড়া রোড দিয়ে বাড়ি ফিরেছে তাই তাঁদের গায়েও লাগতে পারত, যেহেতু কলাবাগান এলাকায় দলীয় কার্যালয় দখল করতে এসে ওরা বাধা পেয়েছে তাই আমার ওপর হামলা করেছে।

অন্যদিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তদন্ত শুরু করেছে যদিও এখনও অবধি এই ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি তবে যে বোমাটি ফাটেনি সেটি আপাতত উদ্ধার করেছে পুলিশ। যদিও বিজেপির আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। ট্যানারির সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং সাজানো ঘটনা বলে জানিয়েছেন তৃণমূলের বিধানসভা তৃণমূল মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষ।

Related Articles

Back to top button