টাইমলাইনখেলাঅন্যান্য খেলাধুলা

কমনওয়েলথে এক দিনে রচিত হলো দুটি ইতিহাস, স্টিপলচেজ ও 10KM হাঁটায় রুপো জয় অবিনাশ ও প্রিয়াঙ্কার

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: কমনওয়েলথে ফের ভারতের দাপট। শনিবার প্রথম মহিলা ভারতীয় হিসাবে প্রিয়াঙ্কা গোস্বামী কমনওয়েলথ গেমসে ১০,০০০ মিটার বা ১০ কিমি হাঁটা ইভেন্টে রৌপ্যপদক জয় করেছেন। গোস্বামী এই প্রতিযোগিতায় ব্যক্তিগত সেরা সময় ৪৩:৩৮.৮৩ সেকেন্ড সময় করে রুপো জিতেছেন। অস্ট্রেলিয়ার জেমিমা মন্টাগের তাকে হারিয়ে সোনা জিতেছেন। কেনিয়ার এমিলি ওয়ামুসি এনগি প্রিয়াঙ্কার পরে ফিনিশ করে ব্রোঞ্জ জিতেছেন।

তেজস্বিন শঙ্কর (হাই জাম্প) এবং এম শ্রীশঙ্কর (লং জাম্পে) পরে প্রিয়াঙ্কার এই পদকটি হলো চলতি কমনওয়েলথ গেমসে ভারতের অ্যাথলেটিক্স থেকে পদক। এর আগে পুরুষ ও নারী মিলিয়ে এই প্রতিযোগিতায় ভারতকে একটিমাত্র পদক (ব্রোঞ্জ) এনে দিতে পেরেছিলেন হরমিন্দর সিং। সেই পদকটিও এসেছিল ২০১০ সালে। ২৬ বছর বয়সী প্রিয়াঙ্কা ভারতীয় মহিলাদের মধ্যে ২০ কিমি এবং ৩৫ কিমি উভয় ক্যাটাগরির রেস ওয়াকেই জাতীয় রেকর্ডের অধিকারী। তিনি শুরু থেকেই গতি বাড়িয়ে আজ নিজের যাত্রা শুরু করেছিলেন এবং ৪ কিমি অবধি সবথেকে এগিয়ে ছিলেন। কিন্তু তারপর অজি প্রতিদ্বন্দ্বির কাছে হার মানতে হয় তাকে।

এরপরে ভারত পেয়েছে আরেকটি চাঞ্চল্যকর পদক! কমনওয়েলথে একটি ঐতিহাসিক রৌপ্যপপদক জিতলো ভারত। স্টিপলচেজার অবিনাশ সাবলে কমনওয়েলথ গেমস ২০২২-এ পুরুষদের ৩০০০ মিটার স্টিপলচেজ ইভেন্টে একটি ঐতিহাসিক পদক জয় করেছে। তিনি এই রুপোটি জিততে ৮:১১.২০ সময় নিয়েছেন যা একটি নতুন জাতীয় রেকর্ড। এর আগে অবিনাশ নিজেও কোনওদিন এত ভালো টাইমিং করতে পারেননি। পদক জয়ের গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে নিজের সেরাটা বার করে আনেন তিনি।

সাধারণত এই খেলায় দাপট দেখিয়ে থাকে কেনিয়া। এবার সেই কেনিয়ানদের সাম্রাজ্যে থাবা বসিয়েছেন অবিনাশ। কেনিয়ার আব্রাহাম কিবিওত, যিনি গতবারের কমনওয়েলথে রৌপ্য পদক জয় করেছিলেন তার কাছে অবিনাশকে ০.০৫ সেকেন্ডের ব্যবধানে হার মানতে হয়। অবিনাশের পরে ফিনিশ করে বিশ্ব জুনিয়র চ্যাম্পিয়ন আমোস সেরেম, ব্রোঞ্জ জিতেছেন (৮:১৬.৮৩) যিনি আরও একজন কেনিয়ান ক্রীড়াবিদ। ১৯৯৪ সালের পর প্রথম এই ইভেন্টের পোডিয়ামে কেনিয়ান কোনও ক্রীড়াবিদ ছাড়াও অন্য কোনও দেশের ক্রীড়াবিদ ওঠার সুযোগ পেলেন। তাই স্বাভাবিকভাবেই ভারত অবিনাশকে নিয়ে খুব গর্বিত।

Related Articles

Back to top button