আন্তর্জাতিক

ভয়ঙ্কর নৌ দুর্ঘটনা পড়শী দেশ বাংলাদেশে, দুই নৌকার সংঘর্ষে মৃত ২৫

বাংলা হান্ট ডেস্ক: সাতসকালে ভয়ঙ্কর নৌ দুর্ঘটনার সাক্ষী থাকলো বাংলাদেশ। সেদেশের মাদারীপুরে শিবচর উপজেলায় বাংলাবাজার ফেরিঘাটে বালুবাহী বাল্কহেডের সঙ্গে স্পিডবোটের সংঘর্ষে মৃত ২৫। এ ঘটনায় পাঁচজনকে উদ্ধার করা হয়েছে। তার মধ্যে একজনের অবস্থা বেশ গুরুতর। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার সকাল সাতটার দিকে পদ্মাতে এই দুর্ঘটনা ঘটে। বাংলাবাজার ফেরিঘাটের ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক আশিকুর রহমান বিষয়টি জানিয়েছেন, মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া থেকে ৩০ জন যাত্রী নিয়ে একটি স্পিডবোট বাংলাবাজার ফেরিঘাটের দিকে যাচ্ছিল। স্পিডবোটটি বাংলাবাজার ফেরিঘাটের পুরোনো কাঁঠালবাড়ি ঘাটের কাছাকাছি আসার পর বালুবোঝাই বাল্কহেডের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে স্পিডবোটটি উল্টে যায়। এ ঘটনায় ২৫ জনের লাশ এ পর্যন্ত উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকাজ চলছে। হতাহত ব্যক্তিদের নাম ও পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

বাংলাদেশের ওপর দিয়ে বহমান শত শত নদী। একে ঘিরেই অনেক মানুষের জীবনজীবিকা। যাতায়াত, যোগাযোগ, ব্যবসা-বাণিজ্য চলছে নদীকে ঘিরে। নদী দিয়েছে ‘মাছে ভাতে বাঙালি’ উপাধি। এ ছাড়া এ দেশে অনেক মানুষের যাতায়াতের জনপ্রিয় একটি মাধ্যম নৌপথ। তুলনামূলকভাবে খরচ কম এবং আরামদায়ক হওয়ায় অনেক মানুষই যাতায়াতের জন্য নৌপথকে বেছে নেয়। এ দেশের এক-তৃতীয়াংশ মানুষ কমবেশি নৌপথে যাতায়াত করে। বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের গণপরিবহন বলতে নৌযানকেই বোঝায়। কিন্তু এত কিছু সত্ত্বেও বাংলাদেশের নৌপথ কতটুকু নিরাপদ? কিছুদিন পরপরই ছোট-বড় দুর্ঘটনাই তার জানান দেয়। দেশবাসীকে শোকের ভার সইতে না সইতেই আবার দুর্ঘটনা হানা দেয়। কিন্তু নৌপথে নিরাপত্তার এ রকম বেহাল দশা চলবে কতকাল! আর কত প্রাণ হারালে জ্ঞান ফিরবে, বলছেন বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ।

Back to top button