বঙ্গহোম পেজLok Sabha Vote 2019

ভোট মিটলেও ভোট পরবর্ত্তী হিংসা অব্যাহত বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর লোকসভা এলাকায়

ইন্দ্রানী সেন,বাঁকুড়া:ভোট মিটলেও ভোট পরবর্ত্তী হিংসা অব্যাহত বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর লোকসভা এলাকায়।আবার ও শাসক দলের হাতে আক্রান্ত হওয়ার অভিযোগ করলো বিজেপি।সোমবার রাতের এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ালো পাত্রসায়র থানার নারায়ণপুর গ্রামে।

এই ঘটনায় আহত চণ্ডী রায় বলেন,”বিজেপি কর্মীরা সক্রিয় থাকার কারণে ভোটের দিন আমাদের এলাকায় শাসক দল কোন দুনম্বরী করতে পারেনি। সেই জন্যই রাতের অন্ধকারে বিজেপি কর্মীদের বাড়িতে তারা হামলা চালিয়েছে।” অপর আহত বিজেপি কর্মী ভক্তি শাল বলেন,” ঐ দিন আনুমানিক রাত বারোটা নাগাদ চিৎকার চেঁচামেচি শুনে ঘুম থেকে বাড়ির বাইরে বেরোতেই তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতিরা মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করে।” শেষ পাওয়া খবরে জানাগেছে আহত বিজেপি সমর্থকরা বিষ্ণুপুর জেলা সাংগঠনিক দপ্তরে আশ্রয় নিয়েছেন।

প্রহৃত বিজেপি সমর্থকরা দাবী করেছেন,সোমবার রাতে বেশ কিছু তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতি লাঠিসোটা ও বোমা বারুদ নিয়ে পাত্রসায়রের নারায়ণপুর গ্রামে বেছে বেছে বিজেপি সমর্থকদের বাড়িতে হামলা চালায়। গুরুতর আহত পাঁচ সমর্থক কোন রকমে প্রাণ বাঁচিয়ে দলের বিষ্ণুপুর জেলা সাংগঠনিক কার্যালয়ে আশ্রয় নিয়েছেন বলে বিজেপি সূত্রে দাবী করা হয়েছে। এই ঘটনায় ভক্তি শাল, চণ্ডী রায়, সুকুমার রায় ও নেপাল চৌনি কম বেশী আহত বলে জানা গেছে। যদিও শাসক দল তৃণমূলের পক্ষ থেকে এই ঘটনার দায় অস্বীকার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Close
Close