খেলা

বাংলার ক্রীড়াবিদরা কি বাংলা থেকে প্রাপ্য সুবিধা পাচ্ছেন? – অভিজিৎ কুন্ডু

আপনার প্রিয় ভারতীয় ফরওয়ার্ড কে? ৯০% মানুষ বলবেন সুনীল ছেত্রী, যদি ডিফেন্ডার জিজ্ঞেস করেন৭০% বলবেন সন্দেশ ঝিঙান, গোলকীপার? গুরপ্রীত সিংহ সাঁধু. লক্ষ্য করে দেখুন একটি নামও বাঙালি নয়, অথচ “সব খেলার সেরা বাঙালির তুমি ফুটবল”. ক্রিকেট নিয়ে না বলে ফুটবল নিয়েই বলা টা গুরুত্বপূর্ণ কারণ আজীবন ভারতের মাটিতে যখন বাকি সব জাতি উপেক্ষা করেছে, তখন শুধুমাত্র বাঙালি তাকে লালন পালন করে রেখেছিলো, অথচ আজকে আন্তর্জাতিক বাজার থেকে যখন ভারতীয় ফুটবল ফ্যান বেস এর উপর নজর পড়েছে, যখন ভারতের মাটি থেকে মুনাফা হওয়া সম্ভব এবং তা বিপুল অঙ্কের অর্থ এই পরিস্থিতি তৈরী হয়েছে তখন বাংলা সবথেকে বেশি মাত্রায় উপেক্ষিত হচ্ছে. আজকে এ আই এফ এফ বলুন আর এই এম জি আর বলুন এরা কেউ চায়না বাংলার ফুটবলের উন্নতি হোক, এরা শুধুমাত্র বাংলার দর্শক এর পকেট কেটে টাকা রোজগার করতে ব্যস্ত. বাংলার দুই শতাব্দী প্রাচীন ক্লাব কে আর্থিক সহযোগিতার কথা ছেড়েই দিলাম, যারা বাংলার ছোট ক্লাব হয়েও সাপ্লাই লাইন এর কাজ করতো তাদের কে অনাহারে এরা মারছে দিনের পর দিন, আপনি যদি ময়দান এর ফার্স্ট ডিভিশন ক্লাব এ যান আপনি দেখতে পাবেন, ঘর বাড়ি ছেড়ে এসে থাকা গ্রামীণ ছেলে পুরো বছরের জন্য সই করছে মাত্র ২০, ০০০ টাকায়, অথচ ফোর্থ গ্রেড এর অবাঙালি খেলোয়াড় এসে প্রিমিয়ার ডিভিশন এ বেঞ্চে বসেও এর প্রায় দশ গুন্ টাকা পায়. এর ফলে বাঙালির মধ্যে ফুটবল খেলার প্রতি আগ্রহ শুধু হারাচ্ছে তাই নয় উপরন্তু যারা খেলতে ভালোবাসে তারাও নিজেদের ঠিকঠাক খাওয়া টুকুও জোগাড় করতে পারছেনা, তারপর আমাদের মাথায় ঢোকানো হচ্ছে বাঙালির শারীরিক ক্ষমতা কম তাই সে ফুটবল এর যোগ্য নয়. যখন প্রথম বছর আই এস এল শুরু হলো মিসেস নীতা আম্বানি প্রতিশ্রুতি দিলেন প্রতিটি রাজ্যের ফুটবলের তৃণমূল স্তরে উন্নতি ঘটানো হবে, অথচ দুবার করে বাংলার franchisee খেতাব পাওয়ার পরেও সেসবের কোনো নাম গন্ধ নেই, এমন কি তাদের স্কোয়াড এই এখন বাংলার খেলোয়াড় রা জায়গা করতে ব্যর্থ, অথচ দক্ষিণ ভারতে গিয়ে দেখুন সেখানে আই লীগ হোক কি আই এস এল ভূমিপুত্র রাই অগ্রাধিকার পাচ্ছে. এই সম্পূর্ণ চক্রান্তের বিরুদ্ধে সংগঠিত আন্দোলন হওয়ার প্রয়োজনীয়তা আছে. তার জন্য বাংলার ক্রীড়া প্রেমীদের এক করা হোক, সুনীল ছেত্রী দের সাথে আমাদের কোনো বিরোধ নেই, ওরা দেশের গর্ব. কিন্তু বুধিরাম টুডু, আজহারউদ্দিন মল্লিক দের ও অন্তত নিজ প্রতিভা দেখানোর সুযোগ টুকু, পরিকাঠামো টুকু দেওয়া হোক

Leave a Reply

Close
Close