টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভারত

সম্মানিত হল হাঁদা-ভোঁদা, নন্টে-ফন্টে আর বাটুলও! ‘পদ্মশ্রী’ পাচ্ছেন বাঙালির প্রিয় নারায়ণ দেবনাথ

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ছেলেবেলা মানেই- নন্টে-ফন্টে আর কেল্টুদার কান্ডকারখানা, সঙ্গে বাটুল দি গ্রেট আর বাচ্চু-বিচ্চু, আরে হাঁদা ভোঁদার কথা ভুললে চলে নাকি? ছোটবেলার সেইসব কমিকসের বইগুলো আজও কেমন মন খারাপের মোক্ষম দাওয়াই। আর এই ওষুধের প্রস্তুতকারক হলেন নারায়ণ দেবনাথ (narayan debnath)। হাসির রসদ যোগানো এবার এই বাঙালি প্রবাদপ্রতীম নারায়ণ দেবনাথকে সম্মানিত করা হচ্ছে ‘পদ্মশ্রী’ (padma shri) সম্মানে।

১৯২৫ সালে হাওড়া জেলার শিবপুরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন লেখক-চিত্রশিল্পী  নারায়ণ দেবনাথ। অঙ্কন শিল্পকে ভালোবেসে ইন্ডিয়ান আর্ট কলেজের চিত্রকলা বিভাগে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সেইসময় দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে পড়াশুনা শেষ না করতে পারলেও, যতটুকু শেখার তিনি শিখে নিয়েছিলেন।

শুরু হল পথ চলা। প্রসাধনসামগ্রীর লোগো, মাস্টহেড, সিনেমা কোম্পানির বিভিন্ন লিফলেট ইত্যাদি কাজ করে বাজারে বেশ সুনাম অর্জন করে ফেলেছিলেন সেদিনের অল্প বয়সী নারায়ণ দেবনাথ। কিন্তু নতুন কিছু করার ইচ্ছা, প্রতিনিয়তই তাঁকে তাড়া করে বেড়াতো। এইভাবে একদিন শুকতারা পত্রিকা তাঁর স্বপ্নের চাবিকাঠি হয়ে ধরা দিল, আর তৈরি হল সকল অমর সৃষ্টি।

প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও প্রজাতন্ত্র দিবসের পূর্বে পদ্ম সম্মান প্রাপকের তালিকা প্রকাশ করল ভারত সরকার। সোমবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফ থেকে প্রকাশ করা তালিকা থেকে জানা গিয়েছে- এবছর ৭ জন পাচ্ছেন পদ্মবিভূষণ সম্মান, পদ্মভূষণ পুরস্কার পাচ্ছেন ১০ এবং ১০২ জন পাচ্ছেন পদ্মশ্রী পুরস্কার। বাংলার ৭ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব এবছরের পদ্মশ্রী সম্মানে সম্মানিত হবেন। তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন লেখক-চিত্রশিল্পী  নারায়ণ দেবনাথ।

Back to top button