টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

দুয়ারে সরকার, দুয়ারে রেশনের এবার দুয়ারেই পৌঁছাবে পুলিশও, শুরু হল ‘পাড়ায় পাড়ায় থানা’ প্রকল্প

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ নির্বাচনের আগে মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee) দুয়ারে সরকার প্রকল্প রীতিমত সাড়া ফেলেছিল মানুষের মধ্যে। আর সেই কারণেই মানুষের দুয়ারে দুয়ারে একের পর এক প্রকল্পকে পৌঁছে দিতে বদ্ধপরিকর রাজ্য সরকার। এতে একদিকে যেমন মানুষ সঠিকভাবে পরিষেবা পান, তেমনি অন্যদিকে বজায় থাকে স্বচ্ছতাও।

আর সেই কারণেই নির্বাচনের সময়ই দুয়ারে সরকারের পর ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্পের ঘোষণা করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে তার কাজ। আর এবার এই প্রকল্পগুলির অনুকরণে একটি নতুন প্রকল্প শুরু করল বীরভূম থানার পুলিশ। যাকে এক কথায় হয়ত বা বলা যায় ‘দুয়ারে পুলিশ’ প্রকল্প। যদিও ‘পাড়ায় পাড়ায় সমাধানের’ অনুকরনে এর নাম রাখা হয়েছে ‘পাড়ায়-পাড়ায় থানা’।

অনেক ক্ষেত্রেই থানায় অভিযোগ করতে গিয়ে নানা সমস্যায় পড়তে হয় সাধারণ মানুষকে। গ্রামে ছোটখাটো সমস্যার জন্য সব সময় থানায় পৌঁছানো সম্ভবপর হয় না। আর সেই কারণেই পরিষেবা থেকে বঞ্চিত থেকে যান অনেক মানুষ। এবার মানুষকে আরও ভালো পরিষেবা দিতেই এই নতুন প্রকল্পের আয়োজন করল বীরভূম থানার পুলিশ।

এই প্রকল্পের মাধ্যমে পাড়ায় পাড়ায় অভিযোগের কথা শুনে দ্রুততার সঙ্গে তার সমাধানে মন দেবে পুলিশ। এর ফলে একদিকে যেমন কমবে অপরাধের প্রবণতা। তেমনি অন্যদিকে আরও তাড়াতাড়ি উপযুক্ত পরিষেবা লাভ করবে মানুষ।

এদিন বীরভূমের মহম্মদ বাজারের দীঘল পঞ্চায়েত এলাকায় শুরু হলো এই প্রকল্প। প্রকল্পটির উদ্বোধন করেন, বীরভূমের বর্তমান পুলিশ সুপার নগেন্দ্র ত্রিপাঠী। সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানান, “পাড়ায় পাড়ায় থানা শুরু করলাম আমরা। নির্দিষ্টি দিনে নির্দিষ্ট গ্রামে পৌঁছে যাবে থানা। গুরুতর নয় এমন সমস্যার সমাধান এলাকাতেই করা হবে।” থানার এই ভূমিকায় খুশি স্থানীয় এলাকার বাসিন্দারাও।

Related Articles