টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভারতরাজনীতি

অগ্নিগর্ভ ত্রিপুরা, বিজেপি সিপিএম সংঘর্ষের আগুনে ঘি ঢালল অভিষেক

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ রাজনৈতিক টানাপোড়েনে উত্তপ্ত মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের গড় ত্রিপুরা (tripura)। একাধিকবার তৃণমূলের উপর হামলার অভিযোগের পর, এবার সিপিএম কর্মীদের বাড়ি-কার্যালয়ে আগুন লাগানোর অভিযোগ উঠল বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে। সিপিএম বনাম বিজেপি সংঘর্ষে অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠেছে ত্রিপুরা।

বিষয়টা হল, সোমবার নিজের বিধানসভা কেন্দ্র ধনপুরে ঢুকতে বাধা পেয়েছিলেন ত্রিপুরার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার। সেইসময় প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর কনভয়ে হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছিল বিজেপির বিরুদ্ধে। এই ঘটনার পরবর্তীতে প্রতিবাদ স্বরূপ ক্ষোভ প্রকাশ করে ধিক্কার মিছিল বের করেছিল সিপিএম কর্মীরা।

এরপরই অভিযোগ উঠেছে, সেই ঘটনার রেশ টেনে বুধবার বিশালগঢ়-উদয়পুর এলাকা সিপিএমের একাধিক দফতর ও কার্যালয়ে হামলা চালায় বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। অফিসের পাশাপাশি একাধিক গাড়িতেও আগুন লাগিয়ে দেওয়া থেকে শুরু করে আগরতলা মেলার মাঠ এলাকায় থাকা সিপিএম কার্যালয়েও আগুন লাগানোর অভিযোগ তোলে ত্রিপুরার বাম কর্মী-সমর্থকরা। আর এই ঘটনায় অভিযোগের তীর রয়েছে বিজেপির দিকে।

যদিও নিজেদের দিকে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করে, এই বিষয়কে বিজেপির পক্ষ থেকে সাধারণ মানুষের ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ বলেই ব্যাখ্যা করা হয়েছে। এই বিষয়ে অগ্নিগর্ভ থাকা ত্রিপুরার আগুনে একটু ঘি ঢেলে দেন সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)।

সিপিএম কার্যালয়ের পাশাপাশি সংবাদ মাধ্যমের গাড়িতেও আগুন লাগানো হয় বলে অভিযোগ ওঠে। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার রাত সাড়ে ৯ টা নাগাদ ট্যুইটে বিজেপিকে আক্রমণ করে অভিষেক বলেন, ‘হিংসা এবং গুণ্ডামি বিজেপি মজ্জায় এমনভাবে রয়েছে, যে তাঁরা গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভকেও এভাবে আক্রমণ করতে পিছুপা হচ্ছে না’।

Related Articles

Back to top button