টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

বঙ্গভঙ্গের দাবিদারের সঙ্গে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বৈঠক, ছবি ফাঁস করে বিঁধলেন দিলীপ

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ উত্তরবঙ্গের সাংসদ জন বারলা (John Barla) পৃথক উত্তরবঙ্গের দাবি তোলার পর থেকেই যথেষ্ট অস্বস্তিতে পড়েছে রাজ্য বিজেপি (BJP) নেতৃত্বকে। একদিকে যেমন দলের পক্ষ থেকে সঠিকভাবে সমর্থন পাচ্ছেন না জণ, তেমনই আবার তাকে সম্পূর্ণ নাকচও করে দিতে পারছে না বিজেপি। যার জেরে নরম মনোভাব নিয়ে কার্যত তাকে বোঝানোরই চেষ্টা চলছে। ইতিমধ্যেই তার মন্তব্যকে কিছুটা সমর্থন দিতে গিয়ে বেগ পেতে হয়েছে বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁকেও (Saumitra Khan)।

অন্যদিকে বিজেপি বঙ্গভঙ্গের কারিগর বলে আক্রমণ চালিয়ে আসছিল রাজ্যের শাসক দলও। এবার কার্যত পাল্টা দিল বিজেপি। একুশের নির্বাচনের আগে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চাকে উত্তরবঙ্গের তিনটি আসন ছেড়ে দিয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee)। উত্তরবঙ্গের উন্নয়নে একাধিক প্রতিশ্রুতিও দিয়ে ছিলেন তিনি। নির্বাচনের ফল ঘোষণার দু মাস পেরিয়ে গিয়েছে, তাই এবার তৃণমূল কংগ্রেসের ভারতীয় সম্পাদক তথা সেকেন্ড ইন কমান্ড অভিষেক ব্যানার্জি (Abhishek Banerjee) ও রাজ্যের আইন মন্ত্রী মলয় ঘটকের (Malay Ghatak) সঙ্গে দেখা করলেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার অন্যতম নেতা রোশন গিরী (Roshan Giri) এবং আরেক প্রতিনিধি ডঃ আর বি ভুজল (R B Bhujal )।

এবার এই নিয়েই কটাক্ষ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। এই বৈঠকের ছবি টুইট করে তিনি লেখেন, ‘বঙ্গভঙ্গ ও তৃণমূল’। ছবিতে আরও লেখা, ” ‘বঙ্গভঙ্গ’ করে পাহাড়কে আলাদা করার মূল দাবিদার বিমল গুরুংয়ের দলের নেতা রোশন গিরীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন অভিষেক ব্যানার্জি ও মলয় ঘটক। উত্তরবঙ্গের মানুষ তৃণমূলকে সম্পূর্ণরূপে প্রত্যাখ্যান করে দিয়েছে। তাই এবার পাহাড়ে অরাজকতা সৃষ্টি করার জন্য বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতাদের সাহায্য নিচ্ছে তৃণমূল।”

যদিও রোশনের মতে, পাহাড়ের সমস্যার চিরস্থায়ী সমাধান প্রয়োজন। তাই নিয়েই তৃণমূলের সর্বভারতীয় সম্পাদক অভিষেক ব্যানার্জি এবং আইন মন্ত্রী মলয় ঘটকের সঙ্গে বৈঠক করেছেন তারা। ২০২১ সালের নির্বাচনী ইস্তেহারে তৃণমূল একথা উল্লেখ করেছিল যে পাহাড়ে সমস্যার স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধান করা হবে। সেই নিয়েই এদিন বৈঠক হয়েছে বলে জানান তিনি।

Related Articles