টাইমলাইনবিনোদনরাজনীতি

মুখ পুড়ল শিবসেনার, উদ্দেশ‍্যপ্রণোদিত ভাবে কঙ্গনার অফিস ভাঙায় BMCকে দিতে হবে ক্ষতিপূরণ

বাংলাহান্ট ডেস্ক: ৯ সেপ্টেম্বর কঙ্গনা রানাওয়াতের (kangana ranawat) মুম্বইয়ের অফিসের একাংশ ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়ায় এবার বড়সড় বিপাকে পড়ল বৃহন্মুম্বই পুরসভা (BMC)। প্রতিশোধের মনোভাব নিয়ে ভাঙা হয়েছে অভিনেত্রীর অফিস, এই মর্মে রায় দিয়ে BMC কে কঙ্গনাকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিল বম্বে হাইকোর্ট।

২০২১ এর মার্চের মধ‍্যে এই সংক্রান্ত রিপোর্ট আদালতে পেশ করার নির্দেশ BMC কে দিয়েছে বম্বে হাইকোর্ট। তবে ক্ষতিপূরণের জন‍্য পুরসভার রিপোর্টের রায় পরে শোনাবে বম্বে হাইকোর্ট। জানা গিয়েছে এমনটাই।


জাস্টিস এসজি কাঠাওয়ালা ও আরআই চাগলার ডিভিশন বেঞ্চ এদিন শুনানিতে বলে, যেভাবে এই ভাঙচূর করা হয়েছে তা অনধিকৃত। অভিযোগকারিনীকে আইনি সাহায‍্য নিতে আটকানোর জন‍্য এটা একটা প্রয়াস ছিল। অবৈধ নির্মাণ নিয়ে BMCর নোটিসকেও রদ করে দিয়েছিল আদালত।

শুনানিতে আরো বলা হয়, মামলাটি দেখে মনে হচ্ছে অভিনেত্রীর টুইট ও তাঁর বয়ানের জন‍্য তাঁকে নিশানা বানিয়েই এই কাজ করা হয়েছে। তবে অপরদিকে কঙ্গনাকে তাঁর মতামত প্রকাশের ক্ষেত্রে সংযম রাখারও নির্দেশ দেয় বম্বে হাইকোর্ট।

এর আগে সংবাদ সংস্থা মহারাষ্ট্র টাইমস এর একটি প্রতিবেদন সোশ‍্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন কঙ্গনা। সেখান থেকে জানা যায়, কঙ্গনার বিরুদ্ধে মামলা লড়ার জন‍্য আইনজীবী আসপি চিনাইকে ৮২ লক্ষ টাকা পারিশ্রমিক দিয়েছেন আদালতে উপস্থিত হওয়ার জন‍্য।

সম্প্রতি রাজনৈতিক নেতা শরদ যাদব বিএমসিকে খরচ হওয়া অর্থের পরিমাণ জানতে চেয়ে পাঠালে এই পারিশ্রমিকের পরিমাণ জানা যায়। একটি বিবৃতিতে বিএমসি জানায়, ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সাড়ে ২২ লক্ষ ও ৭ অক্টোবর পর্যন্ত ৬০ লক্ষ টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছেন ওই আইনজীবী।

টুইটারে বিএমসি তথা শিবসেনার উদ্দেশে তীব্র আক্রমণ শানিয়ে কঙ্গনা লেখেন, ‘অবৈধ ভাবে আমার বাড়ি ভাঙার জন‍্য মিউনিসিপ‍্যাল কর্পোরেশন এখনো পর্যন্ত ৮২ লক্ষ টাকা খরচ করেছে আইনজীবীর পেছনে। পাপার পাপ্পু একজন মহিলাকে উত‍্যক্ত করার জন‍্য জনসাধারনের টাকা খরচ করছে। মহারাষ্ট্রের এখন এই অবস্থা। খুবই দুর্ভাগ‍্যজনক।’

Back to top button