টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

বিজেপিকে বহিরাগত প্রমাণ করতে সুভাষ চন্দ্র বসুর সাথে মমতার তুলনা তৃণমূল নেতার!

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ এবার বিজেপিকে বহিরাগত তকমা দিতে আসরে নামলেন তৃণমূল (all india trinamool congress) নেতা ব্রাত্য বসু। তিনি বলেন, ত্রিপুরী কংগ্রেসের পর সুভাষ বোসের (Subhas Chandra Bose) সাথে যা যা হয়েছিল, মমতার (Mamata Banerjee) সাথেও তাই হচ্ছে না? তিনি বলেন, মমতা ব্যানার্জী নেতাজী সুভাষ বসুর মতো লড়াই করেছেন। সেই সময় যেই আজাদ হিন্দ ফৌজ তৈরি হয়েছিল আজ তাঁর নাম তৃণমূল।

উনি বলেন, আজ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে নিয়ন্ত্রণ করতে পশ্চিম ও উত্তর ভারত থেকে লোক পাঠানো হচ্ছে। উনি বলেন, তাহলে আমাদের মাথার উপরে অন্য রাজ্যের লোক এনে মুখ্যমন্ত্রী বসানো হবে? ভিন রাজ্যের রাজনৈতিক নেতাদের আমাদের মাথার উপর বসানো হবে?

তিনি বলেন, একসময় সুভাষ বসু রাজনীতির শিকার হয়েছিলেন, আর এখন ঠিক একইভাবে মমতা ব্যানার্জীকেও কোণঠাসা করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

আরেকদিকে, রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় (jagdeep dhankhar) ভারতীয় সংবিধান জানেন না বলে কটাক্ষ করলেন তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ ব্যানার্জি (kalyan banerjee)। কেন্দ্র থেকে দেওয়া কৃষকদের অর্থ রাজ্যের মাধ্যমে খরচের বিষয়ে রাজ্যপালকে ঝাঁঝালো ভাষায় আক্রমণ করলেন কল্যাণ ব্যানার্জি। সেইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কাজের বিরোধীতাও করেন।

কল্যাণ ব্যানার্জি রাজ্যপালকে সরাসরি আক্রমণ করে বলেন, ‘রাজ্য সরকারকে মিডল ম্যান বলছেন রাজ্যপাল। তাহলে উনি তো সেই মিডল ম্যানের এক নম্বর জায়গায় বসে আছেন। ভারতীয় সংবিধান জানলে, আপনি এমন কথা বলতে পারতেন না। ভালো করে সংবিধান পড়ুন। নাহলে বলবেন আমি গিয়ে শিখিয়ে দেব’।

কৃষকদের প্রাপ্য অর্থ খরচের বিষয়ে রাজ্যপালকে কটাক্ষ করে বললেন, ‘রাজ্য সরকার জানিয়েছে, কেন্দ্রের দেওয়া অর্থ রাজ্য সরকারের মাধ্যমে খরচ করে কৃষকদের দেওয়া হবে। আপনি বলুন, ভারতবর্ষের কোন আইনে লেখা আছে, যে কেন্দ্র সরাসরি কৃষকদের অ্যাকাউন্টে টাকা দিতে পারে’।

Back to top button