টাইমলাইনভারত

নৃশংস্য হত্যাকাণ্ডঃ একসাথে মা ও ছেলের শবদেহ দেখে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ল গোটা গ্রাম

Bangla Hunt Desk: সংসারে ভাই-বোন, ভাই-ভাইয়ের সম্পর্ককে উদাহরণ হিসাবে দেখা হয়। কিন্তু উত্তরপ্রদেশ (Uttar Pradesh) থেকে দুই ভাইয়ের মধ্যেকার এমন এক অমানবিকতার চিত্র উঠে এল, যা শুনলে চোখে জল চলে আসবে আপনাদেরও। সামান্য কারণে এক ভাই অপর ভাইয়ের উপর যে এতটা হিংস্র হয়ে উঠতে পারে, তা না দেখলে বিশ্বাস করা সম্ভব নয়।

গত বরিবার দুপুরে উত্তর প্রদেশের গোরক্ষপুর জেলার গাগাহা অঞ্চলে মহুয়া গাছ নিয়ে রাজেশ ও অরবিন্দ দুবের মধ্যে দ্বন্ধ বেঁধে যায়। দুই ভাইয়ের মধ্যেকার এই কোন্দল চরমে পৌঁছায়। সেই সময় দুই ভাইয়ের হাতাহাতির মাঝে অরবিন্দের স্ত্রী হেমলতা এবং পুত্র হর্ষ এসে পড়ায় রাগের মাথায় তাঁদের হত্যা করে বড় ভাই রাজেশ।

সামান্য এক গাছকে কেন্দ্র করে ঘটা এই ঘটনা দেখে তাজ্জব বনে যায় গোটা গ্রামবাসী। ভেবেই কূলকিনারা করতে পারে না, কিভাবে সামান্য টাকার জন্যে এক ভাই অপর ভাইয়ের স্ত্রী এবং পুত্রকে হত্যা করতে পারে। অরবিন্দের সাথে সাথে গোটা গ্রাম কান্নায় ভেঙ্গে পরে। দুজনের দেহ ময়না তদন্তেও পাঠানো হয়। ময়না তদন্তের পর দেহ বাড়িতে নিয়ে এলে বুকে একরাশ দুঃখ নিয়ে স্ত্রী এবং পুত্রের মুখাগ্নি থেকে শেষকৃত্য সবই নিজেই করেন অরবিন্দ।

রবিবার রাত থেকেই একে একে সকল আত্মীয় আসতে শুরু করেন তাঁদের বাড়িতে। এক ভাইয়ের প্রতি অন্য ভাইয়ের এই নৃশংস কান্ডের জেরে সকলেই রাজেশকে দোষারোপ করে অভিশাপ দিতে থাকে। গ্রামবাসীরা বলতে থাকে, ভগবান যেন কাউকে এমন ভাই না দেয়।

Related Articles

Back to top button