fbpx
টাইমলাইনভারত

ঘন কালো মেঘের মধ্যেও বালাকোটের মতো লক্ষ্য ভেদ করতে সক্ষম ভারতীয় বায়ুসেনাঃ বিএস ধানোয়া

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ কার্গিল যুদ্ধের ২০ তম বার্ষিকীতে ভারতীয় বায়ুসেনার প্রধান বি.এস ধানোয়া (BS Dhanoa) বলেন, এবার যদি আবারও কার্গিলের মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়, তাহলে সেটার সন্মুখিন হওয়ার জন্য আমরা সম্পূর্ণ ভাবে প্রস্তুত। বি.এস ধানোয়া (Birender Singh Dhanoa) বলেন, ‘প্রতিটি জেনারেল এর মতো, আমি শেষ যুদ্ধ লড়ার জন্য প্রস্তুত। যদি কার্গিলের মতো পরিস্থিতি আবার তৈরি হয়, তাহলে সেটার সন্মুখিন হওয়ার জন্য আমরা প্রস্তুত।”

বায়ুসেনা প্রধান বলেন, ‘দরকার পড়লে আমরা সবরকম আবহাওয়াতে বোমা নিক্ষেপ করতে পারি। এমনকি আকাশে কালো মেঘ থাকলেও আমরা সঠিক লক্ষ্যে বোমা নিক্ষেপ করতে পারি। ২৬ ফেব্রুয়ারি বালাকোট এয়ার স্ট্রাইক প্রমাণ করে দেয় যে, আমরা কতদূর থেকে সঠিক লক্ষ্য ভেদ করতে পারি।”

ধানোয়া-র অনুযায়ী, দেশের সেনা সব রকম পরিস্থিতিতে যুদ্ধের জন্য তৈরি। উনি বলেন, পুলওয়ামা হামলার পর বালাকোটে বায়ুসেনা যেভাবে মিশন কমপ্লিট করেছিল, সেটা আমাদের টিম ওয়ার্ক এবং আমাদের প্রস্তুতির জলজ্যান্ত দৃষ্টান্ত। বায়ুসেনা যেকোন আবহাওয়া এমনকি, আকাশে কালো মেঘ থাকলেও সঠিক লক্ষ্য ভেদ করবে। ২৬ ফেব্রুয়ারি বালাকোটে আমরা এই কাজ করে তাঁর প্রমাণ দিয়েছি। ধানোয়া বলেন, আমি সমস্ত জেনারেল এর মতই এবার শেষ যুদ্ধ লড়াই করার জন্য প্রস্তুত।

প্রসঙ্গত, বালাকোটে ভারতীয় বায়ুসেনা দ্বারা করা এয়ার স্ট্রাইকের পর পাকিস্তান তাঁদের অত্যাধুনিক ফাইটার জেট এফ-১৬ দিয়ে ভারতে হামলার ছক কষছিল। কিন্তু ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান এফ-১৬ এর থেকে অনেক কম শক্তিশালী বিমান মিগ-২১ দিয়ে পাক যুদ্ধ বিমানকে ধ্বংস করেছিল।

ভারতীয় বায়ুসেনার এই কাজের পর পাকিস্তান এতটাই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিল যে, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ থেকে তাঁদের সমস্ত বায়ুসীমা তাঁরা বন্ধ করে দিয়েছিল। এরপর ভারতীয় বায়ুসেনার ঘাঁটি থেকে ভারতীয় ফাইটার জেট না সরালে তাঁরা বায়ু সীমা খুলবে না বলে জানিয়ে দিয়েছিল। যদিও আজ মঙ্গলবার তাঁরা তাঁদের বায়ু সীমা খুলে দেয়।

Leave a Reply

Close
Close