টাইমলাইনবিজ্ঞান

মহাশূন্যে আলোর প্রজাপতি! এই আশ্চর্য সুন্দর বস্তু সম্পর্কে কি বলছেন বিজ্ঞানীরা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ সম্প্রতি আকাশগঙ্গা (milky way) ছায়াপথে এই আলোর প্রজাপতি দেখতে পেয়েছেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। যা নিয়ে ইতিমধ্যে হই চই শুরু হয়ে গিয়েছে বিজ্ঞানী মহলে। আসুন জেনে নি এই আলোর প্রজাপতি আসলে কি

আমাদের এই সৌরজগত আকাশ গঙ্গা বা মিল্কি ওয়ে নামক ছায়াপথে অবস্থিত। এই ছায়াপথেই মেঘমুক্ত আকাশে বিজ্ঞানীরা আবিস্কার করলেন প্রজাপতি সদৃশ আলোক উজ্জ্বল, বর্ণময় এই মহাজাগতিক বস্তুটিকে।

আকাশগঙ্গা ছায়াপথ

ইউরোপীয় সাউদার্ন অবজারভেটরি (ESO) এর দূরবীনে ধরা পড়েছে এই বিরল মহাজাগতিক বস্তুটি। চোখ ধাঁধানো এই অদ্ভুত সুন্দর দৃশ্য সম্পর্কে নেট পাড়ার অধিবাসীদের প্রথম পরিচয় করান চিলির গবেষকরা।

এই ছবিতে যে বর্ণময় আলোর প্রজাপতি ধরা পড়েছে সেটি আসলে একটি মৃত নীহারিকার কারনে সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। তাদের মতে এটি ঐ মৃত নীহারিকা থেকে বেরিয়ে আসা হিলিয়াম, হাইড্রোজেন প্রভৃতি গ্যাসের মিশ্রণে তৈরি আলোকপিন্ড।

তারা জানাচ্ছেন, এই প্রজাপতির চারদিকে যে উজ্জ্বল লাল আলো, সেটি আসলে হাইড্রোজেন গ্যাসের কারনে তৈরি হয়েছে। যার তাপমাত্রা কমপক্ষে ১৮ হাজার ডিগ্রি ফারেনহাইট।

এর আগে, সোলার ডায়নামিক্স অবজারভেটরি টানা 10 বছর ধরে সূর্যের উপর নজরদারি করেছিল, সেই ছবি দিয়েই একটি ভিডিও তৈরি করা হয়েছে। যা সাড়া জাগিয়েছে সামাজিক মাধ্যম গুলিতে।  এই দশ বছরে সূর্য সম্পর্কে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য আবিষ্কৃত হয়েছে, বলে জানিয়েছে নাসা।নাসা জানিয়েছে, সোলার অবজারভেটরি সুর্যের 42.5 মিলিয়ন হাই- রেজোলিউশন ফটোগ্রাফ তুলেছে। পাশাপাশি ২০ মিলিয়ন জিবি ডেটাও সংগ্রহ করেছে।

Back to top button