fbpx
টাইমলাইনভাইরালভারত

মুখে মাস্ক পরুন- বলায় রড দিয়ে বেধড়ক মার খেতে হল এক মহিলা কর্মীকে, ভাইরাল হল সিসিটিভি ফুটেজ

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ কথায় বলে, মায়ের থেকে মাসির দরদ বেশি। সম্প্রতি অন্ধ্রপ্রদেশ (Andhra Pradesh) থেকে একটি ভিডিও ভাইরাল (Viral video) হয়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে আগ বাড়িয়ে ভালো করতে গিয়ে মার খেতে হল শুভাকাঙ্ক্ষীকে। উর্দ্ধতন কর্মীকে মাস্ক (Mask) পরার কথা বলায় মার খেতে হল এক নিম্নতন মহিলা কর্মীকে। যার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে স্যোশাল মিডিয়ার পর্দায়।

করোনা ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষার্থে মাস্ক ব্যবহার সকারের পক্ষ থেকেই বাধ্যতা মূলক করা হয়েছে। তা সত্ত্বেও কিছু মানুষ মাস্ক ব্যবহার না করেই দিব্যি ঘরে বেড়াচ্ছে। কিন্তু তাঁদের বলতে গেলে উল্টে তাঁদের হাতে আবার মারও খেতে হচ্ছে।

ঘটনার সূত্রপাত
সম্প্রতি এমনই এক ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে, যেখানে মাস্ক পরার কথা বলায় মার খেতে হল এক মহিলা কর্মীকে। অন্ধ্রপ্রদেশের নেল্লোর শহরের এই মর্মান্তিক ঘটনার ভিডিও ঘুরে বেড়াচ্ছে নেট দুনিয়ায়। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, নেলোরের পর্যটন দফতরের একটি হোটলে ডেপুটি ম্যানেজার মাস্ক না পরেই সেখানে চলে যান। তৎক্ষণাৎ তাঁকে মাস্ক পড়ার অনুরোধ করেন হোটেলের একজন মহিলা কর্মচারী।

মাস্ক পড়তে বলায় মার খেলেন কর্মী
ব্যাস, এতেই ঘটে যায় চরম বিপত্তি। কেন তাঁকে মাস্ক পড়ার কথা বলা হল? উনি মাস্ক পড়ার কথা বলা কে? এই সব বলতে বলতে ওই মহিলা কর্মিচারীর দিকে এগিয়ে যেতে থাকেন ওই উর্দ্ধতন কর্মকর্তা। হোটেলের সিসিটিভি ফুটেজ থেকে দেখা যায়, ডেপুটি ম্যানেজার ভাস্কর এরপর ওই মহিলাকে বেধরক মারধর করতে শুরু করেন। এমনকি তাঁকে টেনে হিঁচড়ে রড দিয়েও মারা হয়। হোটেলের সিসিটিভির (CCTV) ওই ফুটেজ প্রকাশ হতেই ভাইরাল হয়ে যায়।

গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্তকে
এই ঘটনার পরবর্তীতে নড়ে চড়ে বসেন প্রশাসন। দারুগামিত্তর উপ-পুলিশ পরিদর্শক ভেনুগোপাল বাবু অভিযুক্ত ভাস্করকে গ্রেপ্তার করে তাঁর বিরুদ্ধে ৩৫৪ ধারা, ৩৫৫ ধারা এবং ৩২৪ ধারায় মামলা দায়েরও করেন। অন্ধ্র প্রদেশের ডিজিপি গৌতম সাওয়ংও এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন। পাশাপাশি জাতীয় মহিলা কমিশনও এই ঘটনার দিকে নজর রাখছেন।

Back to top button
Close
Close