টাইমলাইনবিনোদন

শাশুড়ি বৌমাকে অত‍্যাচার করছে, সেটাই গোগ্রাসে গিলছে দর্শক, ভাল কিছু দেখার ইচ্ছাই নেই! বললেন চৈতি ঘোষাল

বাংলাহান্ট ডেস্ক: দিন কয়েক হল শেষ হয়ে গিয়েছে ‘বৌমা একঘর’ (Bouma Akghor)। স্টার জলসার সিরিয়াল মাত্র তিন মাস চলেই পাততাড়ি গুটিয়েছে চ‍্যানেল থেকে। এ নিয়ে নেটমাধ‍্যম, সংবাদ মাধ‍্যমে প্রচুর লেখালেখি হয়েছে। সিরিয়ালের সঙ্গে যুক্ত অভিনেতা অভিনেত্রীরাও মুখ খুলেছেন। অভিনেত্রী চৈতি ঘোষাল (Chaiti Ghoshal) দাবি করেছিলেন, কূটকাচালি দেখানো হয়নি বলেই হয়তো মুখ ফিরিয়ে দর্শকরা।

স্টার জলসায় ‘খুকুমণি হোম ডেলিভারি’ তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে যাওয়ার পর সেই জায়গায় শুরু হয়েছিল বৌমা একঘর। খুকুমণির কথায় কথায় মারপিট আর কূটকাচালি, নেতিবাচকতা দেখে বিরক্তি প্রকাশ করেছিল দর্শক। টিআরপি শীর্ষ থেকে নেমে এসেছিল ঝুপ করে। অথচ বৌমা একঘর কোনো নেতিবাচকতা না দেখিয়েও একবারের জন‍্যও জায়গা করতে পারেনি সেরা দশে।


একই পরিবারের দুই জা ও তাঁদের ছেলের বৌদের মধ‍্যে কোন্দল, রেষারেষির গল্প উঠে এসেছিল বৌমা একঘরে। কিন্তু এই ঝগড়া রেষারেষি সবটাই কিন্তু ছিল কৌতুকের মোড়কে। দর্শকদের মনে ধরেনি। চৈতি বাস্তবিকই হতাশ। নিজেদের প্রমাণ করার সুযোগই পেলেন না।

দর্শকদের উদ্দেশে তিনি প্রশ্ন করেছেন, আপনারা কি আর অন‍্যকিছু দেখবেন না? চৈতি বলেন, শাশুড়ি বৌমাকে অত‍্যাচার করছে আর বৌমা সেটা মুখ বুজে সহ‍্য করছে। দর্শক সেটাই দেখছে। ভাল কিছু দেখার অভ‍্যাস নিজেদেরই করতে হবে, মত চৈতির।

কথায় কথায় উঠে আসে টেলিভিশন দুনিয়ার অত‍্যন্ত জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘এক আকাশের নীচে’র কথা। সিরিয়ালটি প্রথমে টিআরপি ভাল তুলতে না পারলেও বাকিটা ছিল ইতিহাস যা এখনো দর্শকদের মনে গেঁথে রয়েছে। তবে চৈতি বলেন, এক আকাশের নীচে একবারই হয়েছিল।

 

তাবড় সব অভিনেতা অভিনেত্রীরা একজোট হয়েছিলেন এক আকাশের নীচে। ওই লেখক, চিত্রনাট‍্য সব হয়তো আর দ্বিতীয় বার সম্ভব হবে না। তবে বৌমা একঘর যদি আরেকটু সুযোগ পেত তাহলে খুশি হতেন চৈতি।

Related Articles