টাইমলাইনভারতরাজনীতি

অগ্নিবীরদের গ্যারান্টি চাকরির ঘোষণা হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রীর, জানালেন কোথায় করা হবে নিয়োগ

বাংলাহান্ট ডেস্ক : অগ্নিপথ প্রকল্প নিয়ে যখন দেশ জুড়ে চলছে হিংসাত্মক বিক্ষোভ, ঠিক তখনই হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টর করলেন এক দারুণ ঘোষণা। সমস্ত অগ্নিবীরেরা চাকরি পাবে হরিয়ানা সরকারে। চার বছর পর অগ্নিবীরদের ভবিষ্যৎ কী? এই নিয়ে সারা দেশ জুড়ে শুরু হয়েছে তোলপাড়। গত ১৪ জুন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে এই অগ্নিপথ প্রকল্পের কথা ঘোষণা করা হয়। বলা হয় এই প্রকল্পের আওতায় যাঁরা সেনাবাহিনীতে চাকরি পাবেন, তাঁদের চার বছরের জন্য নিযুক্ত হবেন। চার বছর পর এই সেনাদের মধ্যে থেকে মাত্র ১০ শতাংশকে স্থায়ী সেনায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে। বাকিদের নিতে হবে স্বেচ্ছা অবসর।

এই প্রকল্পের কথা ঘোষণার পরই দেশ জুড়ে শুরু হয় বিতর্ক। বিহার, হরিয়ানা, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, তেলেঙ্গানা এবং এমনকি পশ্চিমবঙ্গেও ছড়িয়ে পড়ে বিক্ষোভের আঁচ।

অগ্নিগর্ভ হরিয়ানার পরিস্থিতির সামাল দিতে নতুন পদক্ষেপ করার কথা ঘোষণা করে হরিয়ানা সরকার। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টর মঙ্গলবার ঘোষণা করেন চার বছর পর যে সমস্ত অগ্নিবীররা অবসর নেবেন তাদের চাকরির ব্যবস্থা করবে হরিয়ানা সরকার। অগ্নিপথ প্রকল্প থেকে যাঁরা অবসর নেবেন, তাঁদের প্রত্যেককে গ্রুপ সি বা হরিয়ানা পুলিশে নিশ্চিত চাকরি দেওয়া হবে।

অনেক মন্ত্রী অগ্নিপথ প্রকল্পকে সমর্থন করেছেন করেছেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিং জানিয়েছেন, অগ্নিপথ প্রকল্প তরুণদের দক্ষ হওয়ার পাশাপাশি অর্থ উপার্জনের সুযোগও এনে দিয়েছে। তিনি আরও জানান বাহিনী থেকে অবসর নেওয়ার পরে তাদের কর্মসংস্থানের নিশ্চয়তাও দেওয়া হবে সরকারের তরফ থেকে। তাছাড়া আধাসামরিক বাহিনী এবং রাজ্য পুলিশের পদগুলিও তাদের জন্য সংরক্ষিত রাখা হচ্ছে। গিরিরাজ সিং অভিযোগ করেন, চাকরিপ্রার্থীদের বিভ্রান্ত করে দেওয়ার জন্যই বিরোধী দলগুলো অগ্নিপথ প্রকল্পের ভুল ব্যাখ্যা করে রটনা করছে। তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে সরকারকে আবেদনও জানান তিনি।

Related Articles

Back to top button