টাইমলাইনটেক নিউজভারত

সবার অলক্ষ্যেই দেশে ভাইরাল হচ্ছে Tiktok এর মতই চীনা অ্যাপ Snack video

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ মাসকয়েক আগেই চীন (china) ও ভারতের (india) সংঘর্ষের পরিস্থিতিতে ৫৯ টি চীনা অ্যাপ ব্যান করেছিল ভারত। ভারতের অভিযোগ ছিল চীনের তৈরি এই সব অ্যাপ ভারতের জনগনের ব্যাক্তিগত তথ্য চুরি করছে। কিন্তু সেই ব্যানের পরও আবারও ভারতে বেড়ে উঠছে আরেক চীনের তৈরি অ্যাপ। নাম snack video.

চীনা স্ন্যাক ভিডিও অনেকটা টিকটকের মতই। এটিও একটি শর্ট ভিডিও তৈরির প্ল্যাটফর্ম। লিপ সিঙ্ক সহ টিকটকের অনেক সুবিধাই এই প্ল্যাটফর্মে বর্তমান। টিকটকের ব্যানের পর সবার অলক্ষ্যেই বেড়ে উঠছে স্ন্যাক ভিডিও। ইতিমধ্যেই প্রায় ৫ কোটি মানুষ ডাউনলোড করে ফেলেছে এই অ্যাপ। চায়না অ্যাপটি কুয়েশোউ টেকনোলজি নির্মাণ করেছে। যারা চীনের একটি বড় টেক কোম্পানি হিসাবে বিবেচিত হয়।

প্রসঙ্গত,সম্প্রতি ফ্রান্স সরকারও সে দেশের নাগরিকদের ব্যাক্তিগত তথ্য চুরির অভিযোগ এনেছে বাইটডান্সের টিকটকের বিরুদ্ধে। জানা যাচ্ছে, মে মাসে বাইটডান্সের বিরুদ্ধে প্রথম এই অভিযোগ ওঠে৷ তারপরই অভিযোগ খতিয়ে দেখতে তদন্ত শুরু করে CNIL. সূত্রের খবর অভিযোগ প্রমাণিত হলে টিকটকের বিরুদ্ধে কড়া অ্যাকশনে যাবে ফরাসি সরকার। ফ্রান্সের পাশাপাশি হল্যান্ড ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের কয়েকটি দেশও তদন্ত শুরু করেছে টিকটকের বিরুদ্ধে।

গত ২৯ জুন চীনের অ্যাপে নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্ত নেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি । তথ্যপ্রযুক্তি আইনের 69 ধারা ব্যবহার করে এই অ্যাপ গুলিতে নিষিদ্ধ করা হয় এবং সরকারের তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয় যাতে বলা হয়েছে, দেশের সার্বভৌমত্ব ও সুরক্ষার প্রশ্নে বিপদজনক এই চিনা অ্যাপগুলি।

এরপর ভারতের মতই চীনা অ্যাপ বন্ধের পথে হেঁটেছে আমেরিকাও। আমেরিকার সেক্রেটারি অফ স্টেট মাইক পম্পেও সংবাদ মাধ্যমকে এই কথা জানিয়েছেন। এর আগে তিনি সাক্ষাৎকারে ভারতের অ্যাপ ব্যান সম্পর্কে বলেছিলেন, “আমরা নির্দিষ্ট মোবাইল অ্যাপসের উপর ভারতের নিষেধাজ্ঞাকে স্বাগত জানাই … ‘

 

 

Related Articles

Back to top button