টাইমলাইনআন্তর্জাতিক

ভরসা নেই পাকিস্তানে, আত্মরক্ষার জন্য কাঁধে বন্দুক নিয়ে কাজ করছে চীনা ইঞ্জিনিয়াররা! ভাইরাল ছবি

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ পাকিস্তানে (Pakistan) নির্মাণাধীন চীন-পাকিস্তান ইকোনমিক করিডর (CPEC)-এর সাইট থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু ছবি ঝড়ের গতিতে ভাইরাল (Viral) হচ্ছে। সেখানে চীনা ইঞ্জিনিয়ার্সরা নিজের জীবন বাঁচাতে AK-47 কাঁধে নিয়ে কাজ করছেন। সম্প্রতি পাকিস্তানে চীনা ইঞ্জিনিয়ারদের বাসে জঙ্গি হামলা হয়েছিল। যার জেরে চীনের বেশ কয়েকজন ইঞ্জিনিয়ার মারা গিয়েছিল। আর তারপর থেকে চীনা নাগরিকদের মধ্যে আতঙ্কের আবহাওয়া সৃষ্টি হয়েছে।

বলে দিই, পাকিস্তানে চীনা ইঞ্জিনিয়ার্সরা যেখানেই কাজ করেন, সেখানে তাঁদের সঙ্গে সর্বদা পাকিস্তানের সুরক্ষাকর্মীরা মজুত থাকে। তারপরেও বিভিন্ন সময়ে চীনা ইঞ্জিনিয়াররা স্থানীয় নাগরিকদের বিক্ষোভের মুখে পড়েছে। শেষমেশতো চীনা ইঞ্জিনিয়ার ভর্তি বাসেও হামলা চালিয়েছে জঙ্গিরা।

চীন কোটি কোটি টাকা খরচ করে একটি স্পেশ্যাল সিকিউরিটি ডিভিশন বানিয়েছিল। যার কাজ হল, পাকিস্তানে কর্মরত চীনা নাগরিকদের সুরক্ষিত রাখা। পাকিস্তানকেও চীনা নাগরিকদের সুরক্ষার প্রদান করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, কিন্তু তা সত্বেও পাক নিরাপত্তারক্ষীরা বারবার ব্যর্থ হয়েছে।

সম্প্রতি চীনা ইঞ্জিনিয়ার ভর্তি একটি বাসকে নিশানা করা হয়েছিল। এরপর থেকে চীনা ইঞ্জিনিয়াররা আরও সতর্ক হয়ে গিয়েছে। খাইবার পাখতুনখোয়া অঞ্চলে চীনা ইঞ্জিনিয়ার ভর্তি বাসকে জঙ্গিরা নিশানা করেছিল। যার জেরে ৯ জন চীনা নাগরিকের মৃত্যু হয়েছিল। চীনের তরফ থেকে এই হামলার তদন্তের জন্য পাকিস্তানে একটি স্পেশ্যাল টিমও পাঠানো হয়েছে। আর এই কারণেই চীনা ইঞ্জিনিয়ারদের এই ভাইরাল ছবি চর্চার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ তাঁরা এখন পাকিস্তানের নিরাপত্তারক্ষীদের উপর আর ভরসা করতে পারছে না। তাই তাঁরা নিজের সুরক্ষার দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছে।

শোনা যাচ্ছে যে, চীনা ইঞ্জিনিয়াররা যেই হাতিয়ারগুলিকে নিজেদের সুরক্ষার জন্য ব্যবহার করছে, সেগুলি হাক্কানি নেটওয়ার্ক দ্বারা দেওয়া হচ্ছে। উল্লেখ্য, হাক্কানি নেটওয়ার্কও একটি জঙ্গি সংগঠন। তাঁদের কাজ তালিবানদের মতই আফগানিস্তানকে হামেশা উত্তপ্ত করে রাখা।

Related Articles

Back to top button